সাইনোসাইটিস নিয়ন্ত্রণে করণীয়

সাইনোসাইটিস নিয়ন্ত্রণে করণীয়

SHARE
sinusities-

সাধারণত ব্যাকটেরিয়া বা নানা ধরনের জীবাণুর আক্রমণে সংঘটিত হওয়া একটি রোগ সাইনোসাইটিস। এ রোগের প্রকোপ বা ঝুঁকি অনেক গুণ বাড়িয়ে দেয়নাকে আঘাত পাওয়া, অ্যালার্জি, ঠান্ডা লাগা, ধুলোবালি, নাকের বাঁকা হাড়, নাকে টিউমার ইত্যাদি সমস্যা।

সাইনোসাইটিসের লক্ষণগুলোর মধ্যে রয়েছে নাক দিয়ে পানি পড়া বা হঠাৎ করে নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া, সেই সঙ্গে তীব্র-দীর্ঘ ও মাথাব্যথা। এছাড়াও চাপ চাপ ব্যথা থাকতে পারে সাইনাসগুলোর ঠিক ওপরেও। আক্রান্ত রোগীর মাথা ভারী ভারী লাগে ও খাবারের স্বাদ বা রুচি নষ্ট হয়ে যায়। অনেক সময় এর সঙ্গে জ্বর, গা ম্যাজ ম্যাজ করা এবং মানসিক অবসাদও যোগ হয়। অনেকের ক্ষেত্রে আবার এই সমস্যা বারবার, যেমন বছরে কয়েকবারই হতে দেখা যায়, বিশেষ করে যাদের অ্যালার্জিগত সমস্যা রয়েছে।

সাইনোসাইটিসের সমস্যা এড়াতে অবশ্যই শুষ্ক, খোলামেলা এবং যথেষ্ট আলো-বাতাস রয়েছে এমন ঘরে বা পরিবেশে বসবাস করুন। ধুলোবালি থেকে দূরে থাকুন। ঘন ঘন ঠান্ডা লাগাবেন না। পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলুন এবং প্রচুর পরিমাণে ভিটামিনযুক্ত খাবার খান।

সাইনোসাইটিসের সমস্যা দেখা দিলে প্রাথমিক অবস্থাতেই চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ খেয়ে রোগটিকে নিয়ন্ত্রণে রাখুন। এই রোগটিকে কখনই দীর্ঘমেয়াদি হতে দেওয়া যাবে না। সমস্যা থেকে আরাম পেতে নাকে বাষ্পের ভাপ নিতে পারেন এবং অবশ্যই পরিমিত বিশ্রাম নিন।