রূপচর্চায় গোলাপজল

রূপচর্চায় গোলাপজল

SHARE
rosewater

প্রাচীনকাল থেকেই রূপচর্চার কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে গোলাপজল। ত্বক, চোখ এমনকি চুলের পরিচর্যায় গোলাপজলের তুলনা নেই। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক ত্বক, চুল ও চোখের পরিচর্যা ও সুস্থতায় গোলাপজলের ব্যবহার সম্পর্কে কিছু কথা-

ত্বকের যত্নে :

একটি তুলোর বল বা তুলো গোলাপজলে ভিজিয়ে নিন। প্রতিদিন সকাল ও রাতে ২ বার মুখ ধুয়ে গোলাপজল ভেজানো তুলোর বল পুরো মুখের ত্বকে আলতো করে ঘষে লাগান। এটি আপনার ত্বকের ভেতরের জমে থাকা ময়লা দূর করে ত্বককে করে তুলবে উজ্জ্বল ও নরম। সেই সাথে ব্রণ, ফুসকুড়ি, ত্বকের ইনফেকশনের হাত থেকেও মিলবে মুক্তি।

চুলের যত্নে :

গোলাপজল প্রাকৃতিকভাবে আর্দ্রতা ধরে রাখায় চুলে কন্ডিশনারের কাজ করে । গোলাপজলের মধ্যে মেথি পাউডার মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে চুলের গোঁড়ায় ভালো করে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর চুল ধুয়ে নিন। এতে করে চুলের গোঁড়া মজবুত হবে, মাথার ত্বকের নানা ইনফেকশন জনিত সমস্যা দূর হবে, চুল গজানোর হার বাড়বে এবং খুশকির সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যাবে।

চোখের যত্নে :

দুটো তুলোর বল গোলাপজলে ভিজিয়ে চোখের উপর দিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। এতে করে খুব সহজেই চোখের ডার্ক সার্কেল, চোখের ফোলাভাব দূর হবে। এছাড়াও যদি চোখে কোনো ইনফেকশন হয় বা চোখ লালচে হয়ে ফুলে উঠে বা চুলকোনির সমস্যা হয় তাহলে ২/৩ ফোঁটা গোলাপজল চোখে দিয়ে চোখ বন্ধ করে শুয়ে থাকুন। সমস্যা দূর হয়ে যাবে।