রুক্ষ এবং দুর্বল চুলের যত্নে কার্যকরী মাস্ক

রুক্ষ এবং দুর্বল চুলের যত্নে কার্যকরী মাস্ক

SHARE
Chuler jotno

নিয়মিত চুলে ব্লো-ডাই, হেয়ার স্ট্রেটনার, রোলার ব্যবহার ও পার্ম করার ফলে চুল রুক্ষ হতে বাধ্য। তবে এসব ছাড়াও সঠিক পরিচর্যার অভাবেও চুলে রুক্ষভাব আসতে পারে। তবে নিয়মিত চুলের পরিচর্যা করতে থাকলে উজ্জ্বল ও সিল্কি চুল পেতে বেশী সময় লাগবে না আপনার। আজ আমরা জানবো রুক্ষ এবং দুর্বল চুলের যত্নে কার্যকরী মাস্ক সম্পর্কে-

ডিপ কন্ডিশনিং হেয়ার মাস্ক

প্রয়োজনীয় উপকরণ –

(১) কোকোনাট অয়েল – ২ টেবিল চামচ

(২) অ্যালোভেরা জেল – ২ টেবিল চামচ

(৩) ক্যাস্টর অয়েল – ১ টেবিল চামচ

(৪) ডিম – ১ টি

(৫) লেবুর রস – ১ টেবিল চামচ

ব্যবহারবিধিঃ

উপকরণগুলো মিক্স করে পরিষ্কার চুলে গোঁড়া থেকে আগা পর্যন্ত লাগিয়ে নিন। এবার স্কাল্পে ঘাড়ের থেকে উপরের দিয়ে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করুন ৫ থেকে ৮ মিনিট। চুল যদি অতিরিক্ত ড্যামেজড হয় তাহলে শাওয়ার ক্যাপ পরে গরম গরম ভাব নিয়ে নিতে পারেন । তারপর ২০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ফেলুন.।

হয়েই গেল চুলের যত্নে ডিপ কন্ডিশনিং কেয়ার। শ্যাম্পুর পর চুল শুকালে হাত বুলিয়ে দেখুন সফট শাইনি এবং মজবুত হয়ে উঠেছে। এভাবে নিয়মিত এই প্যাকটি অ্যাপ্লাই করলে দেখবেন চুল মজবুত হবার সাথে সাথে নতুন নতুন চুল গজাতে শুরু করেছে এবং চুল পড়াও কমে যাবে।

এছাড়া প্রতিদিন শ্যাম্পু করা চুলের রুক্ষভাবের জন্য দায়ী। চুল পরিষ্কার রাখা অবশ্যই জরুরী তবে এর জন্য প্রতিদিন অথবা দিনে একের অধিকবার শ্যাম্পু করা ঠিক নয়। কারণ শ্যাম্পুতে এমন কিছু ক্লিনিং এজেন্ট থাকে যা চুলের উজ্জ্বলতা কমিয়ে দেয় ও চুলে তেলের স্বাভাবিক পরিমাণ কমিয়ে দেয় যা চুলের আদ্রতা বজায় রাখে। তাই প্রতিদিন শ্যাম্পু না করে দুই দিন পর পর শ্যাম্পু করার অভ্যাস করুন । প্রত্যেকবার শ্যাম্পু দেয়ার পর কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।