রাগ নিয়ন্ত্রণ করার উপায়

রাগ নিয়ন্ত্রণ করার উপায়

SHARE
how to control anger

রাগ দেহে বাজে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়ায় এবং রোগ প্রতিরোধক্ষমতা কমিয়ে দেয়। এটি হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ায়, বিভিন্ন ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকিতে ফেলে এবং সম্পর্কের অবনতি ঘটায়। তাই মাথার এই তাপকে কীভাবে কমাবেন সেজন্য রইল কিছু পরামর্শ-

১)  রাগ এর উৎস থেকে কিছুক্ষণের জন্য দূরে সরে আসুন।

২) বড় করে নিশ্বাস নিন। অক্সিজেন ব্রেইনে প্রবেশ করলেই চিন্তা ভাবনা করার ক্ষমতা বেড়ে যাবে।

৩)উলটো গুনতে থাকুন। এতে রাগ অনেকটাই কমে যায়।

৪) রেগে গিয়ে না চাইতেও আমরা উল্টাপাল্টা অনেক কিছুই বলে ফেলি যা পরবর্তীতে আমাদের ক্ষতির কারন হয়ে দাঁড়ায়। তাই কিছু বলার আগেই সেটা কাগজে লিখে ফেলুন। তারপর চিন্তা করে দেখুন কথাটা বলা কতটা যুক্তিসঙ্গত।

৫) রাগ প্রকাশ করতে না পারলে সেটা আবার ক্ষতির কারন হয়ে দাড়াতে পারে। চেষ্টা করুন

অন্যভাবে রাগ প্রকাশ করতে। যেমন, বালিশকে মারতে পারেন, অথবা বাথরুম বা অন্য কোথাও একলা চিৎকার করে মনের ঝাল মিটিয়ে গালি দিন। এতে মন অনেকটা হালকা হয়ে যায়।

৬) অযথা রেগে না গিয়ে চিন্তা করুন কিভাবে সমস্যাটাকে সমাধান করা যায়।

৭) যদি পারেন ক্ষমা করে দিন। এটা আপনার এবং তার দুজনের জন্যেই ভাল ফল নিয়ে আসবে।

৮) রাগ কমানোর ভাল একটি উপায় হল – যদি আপনি দাঁড়িয়ে থাকেন তবে বসে পড়ুন, আর বসে থাকলে শুয়ে পড়ুন। এর ফলে আমাদের ব্রেইন চিন্তা ভাবনা করার সময়টুকু পায়।

৯) যুক্তি দিয়ে নিজেকে বোঝানোর চেষ্টা করুন যে রেগে গেলে শুধু নিজেরই ক্ষতি হবে , তার কোন ক্ষতি হবেনা। এতে আপনাআপনি রাগ কমে আসে।

১০) চেষ্টা করুন প্রতিদিন যোগব্যায়াম করতে। এর ফলে আমাদের সহ্যক্ষমতা অনেক বেড়ে যায়।

১১) আপনার প্রিয়জনদের কথা চিন্তা করতে থাকুন। তাদের সাথে কাটানো প্রিয় সময়গুলোর কথা। এর ফলে রাগ গলে পানি হয়ে যেতে বাধ্য।