মাহিরা খানকে পাকিস্তান ছাড়ার হুমকি

মাহিরা খানকে পাকিস্তান ছাড়ার হুমকি

SHARE
Mahira Khan threatens to leave Pakistan

পাকিস্তানী অভিনেত্রী এবং সাবেক ভিজে মাহিরা খান। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের দিল্লীতে জন্মগ্রহণ করেন এবং দেশ বিভাগের প্রাক্কালে পাকিস্তানে চলে যান।

একদিকে ধর্মীয় কট্টরপন্থীদের বিক্ষোভের জেরে উত্তাল পাকিস্তানের রাজধানী, অন্যদিকে টুইটের জেরে উত্তপ্ত পাকিস্তানের সিনে জগৎ ললিউড। টুইট বিতর্কে দেশটির শীর্ষ অভিনেত্রী মাহিরা খানকে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার হুমকি দেওয়া হল।

মাহিরার সদ্য মুক্তি পাওয়া ছবি ভেরনা ঘিরেই যাবতীয় বিতর্ক তৈরি হয়েছে। ছবিতে পাক রাজনীতিবিদ তথা গভর্নরের ছেলেকে চরিত্রহীন হিসেবে দেখানো হয়েছে।

আগেই পাক সেন্সরবোর্ড এই ছবির কিছু অংশ কাটছাঁটের নির্দেশ দেয়। এই নিয়ে বেশকিছুদিন টালবাহানা চলেছে। তারপর শনিবার পাক সেন্সর বোর্ডের সমালোচনা করে টুইট করেন মাহিরা খান।

অভিযোগ, সেই টুইটের পর তাকে পাকিস্তান থেকে চলে যাওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে, না হলে তাকে মরতে হবে৷ চলতি বছর মুক্তি পায় মাহিরা খান অভিনীত বলিউডি ছবি রইস। শাহরুখ খান ও মাহিরা জুটি নিয়ে বলিউড আলোড়িত হয়।

‘‌ভার্না’ শিরোনামের সিনেমাটিতে একজন সম্ভ্রমহানীর শিকার হওয়া এক নারীর ভূমিকায় অভিনয় করেন মাহিরা খান। সিনেমাটিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন পাকিস্তানি নায়ক হারুন শহিদ।

সিনেমাটিতে অযাচিতভাবে কিছু দৃশ্যকে তুলে ধরা হয়েছে দাবি করে সিনেমাটি নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান সেন্সর বোর্ড। তবে সিনেমাটির পরিচালক শোয়াইব মনসুর জানিয়েছেন, গল্পের তাগিদেই দৃশ্যটির চিত্রায়ন করা হয়েছে।

পাকিস্তান সেন্সর বোর্ডের এমন আচরণে বিস্মিত তিনি। এদিকে সিনেমা আটকে দেওয়ার সিদ্ধান্তে দেশটিতে সমালোচনার মুখে পড়েছে পাকিস্তান সেন্সর বোর্ড। এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছেন অনেক পাকিস্তানি তারকাও।