ভৌতিক ছবি নিয়ে আসছেন জেনিফার লরেন্স

ভৌতিক ছবি নিয়ে আসছেন জেনিফার লরেন্স

SHARE
Jenifer Lorence

জেনিফার লরেন্সের ভক্তদের জন্য রয়েছে এক ভিন্ন খবর। আগামী সেপ্টেম্বরে মুক্তি পাবে তাঁর প্রথম ভৌতিক ছবি মাদার। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ছবিটির ট্রেলার। আর তাতেই হুলুস্থুল বাধিয়ে ফেলেছে। না জানি কত ‘ভয়’ দেখাবে মূল ছবি! এরই মধ্য দিয়ে ভৌতিক ছবি নিয়ে আসছেন জেনিফার লরেন্স

ছবির ট্রেলারে দেখা যায়, স্বামীর সঙ্গে শখের বাড়িতে সংসার শুরু করেন জেনিফার। কিছুদিন যেতে না যেতেই রহস্য জেনিফারের চারদিক ঘিরে ফেলে। অপরিচিত কিছুর আনাগোনা শুরু হয় বাড়িতে। দেখা দেয় ভৌতিক যত কাণ্ড। ছবির আবহ-শব্দ ভয় যেন আরও বাড়িয়ে দেয়। সবকিছুর জন্য স্বামীকে সন্দেহ করতেও ছাড়েন না জেনিফার। হাঙ্গার গেমস তারকা লরেন্সের স্বামীর চরিত্রে ছবিতে দেখা যাবে জ্যাভিয়ার বারডেমকে।

রিক্যুয়েম ফর আ ড্রিম ও ব্ল্যাক সোয়ানখ্যাত পরিচালক ড্যারেন অ্যারনোফস্কি পরিচালনা করেছেন মাদার! ছবিটি।

ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর। ভয় পেতে পছন্দ করলে দেখতে পারেন ছবিটি।

উল্লেখ্য, জেনিফার লরেন্স একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তাঁর প্রথম উল্লেখযোগ্য অভিনয় ছিল দ্য বিং ইংভাল শো নামের একটি সিনেমায়। এরপরে তিনি ২০০৮ সালে দ্য বার্নিং প্লেইন এবং ২০১০ সালে উইনটার’স বোন নামের দুইটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্র দুটিতে অভিনয়ের জন্য তিনি অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট অ্যাক্ট্রেস পুরস্কারের মনোয়ন লাভ করেন। তিনি ছিলেন এই পুরস্কারের মনোয়ন পাওয়া দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ ব্যক্তি।

২২ বছর বয়সে লরেন্স টিফ্যানি ম্যক্সওয়েলের নির্দেশনায় একটি রোমান্টিক কমেডি চলচ্চিত্র সিলভার লিঙিস প্লেবুক-এ অভিনয় করেন। এই অভিনয়ের জন্যে তিনি দর্শকজনপ্রিয়তা এবং কয়েকটি পুরস্কার লাভ করেন। পুরস্কারের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট অ্যাক্ট্রেস এবং অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট অ্যাক্ট্রেস। এই পুরস্কার জয়ের মাধ্যমে তিনি অস্কারে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ সেরা অভিনেত্রীর খেতাব লাভ করেন। ২০১৩ সালে কমেডি ড্রামা অ্যামেরিকান হাসেল-এ অভিনয়ের জন্যে লরেন্স গোল্ডেন গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, বাফটা অ্যাওয়ার্ড এবং তৃতীয়বারের মত অ্যাকাডেমি পুরস্কার জয় করেন। ফোর্বসম্যাগাজিনের তৈরী তালিকা অনুযায়ী জেনিফার লরেন্স ২০১৫ সালের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী।