ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলার সাড়ে ৯ বছরের কারাদণ্ড

ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলার সাড়ে ৯ বছরের কারাদণ্ড

SHARE
Brazilian President Lula Convicted Of Corruption

দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় ব্রাজিলের সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলা দা সিলভার সাড়ে ৯ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির আদালত। বৃহস্পতিবার আদালতের দেয়া এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন লুলা।

রাষ্ট্রীয় তেল কোম্পানি পেত্রোব্রাসের সঙ্গে জড়িত দুর্নীতির কেলেঙ্কারিতে ঘুষ হিসেবে পাওয়া একটি অ্যাপার্টমেন্ট গ্রহণ করেছেন, এমন অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন লুলা। অন্যায় কোনো কিছু করার কথা দৃঢ়ভাবে অস্বীকার করে বিচারের রায়কে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে আনা পাঁচটি অভিযোগের প্রথমটির বিচারে এ রায় দেওয়া হয়।

রায়ে এসব অভিযোগই অপরাধ বলে প্রমাণিত হয়েছে। এর পরে ৭১ বছরের লুলা আর আগামী বছর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়াতে পারবেন না।

লুলার ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি, চক্রান্ত করেই লুলাকে ফাঁসানো হয়েছে, যাতে তিনি ক্ষমতায় ফিরতে না পারেন। যদিও খাতায়-কলমে আপিল করার সুযোগ লুলার রয়েছে। কিন্তু ব্রাজিলে বিচারপ্রক্রিয়ার শম্বুকগতিতে কোনও দ্রুত নিষ্পত্তি আশা করা কঠিন।

২০০৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০১১ সালের ১ জানুয়ারি পর্যন্ত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট ছিলেন লুলা। এই সময়কালে ব্রাজিলে অসমতা কমানোয় সারা বিশ্বে প্রশংসিত হন সাবেক এই শ্রমিক নেতা। ব্রাজিলের ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা লুলা দুই মেয়াদে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন শেষে ২০১১ সালে নিজ দলের ঘনিষ্ঠ সহযোগী দিলমা রৌসেফের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করেন। তার শাসনামলে দেশে দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হয় এবং লাখ লাখ মানুষ দারিদ্রের অভিশাপ থেকে মুক্তি পান। তবে সাম্প্রতিক সময়ে পেট্রোব্রাস দুর্নীতিতে তার জড়িত থাকার গুঞ্জন ওঠার পর লুলার জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়ে।

LEAVE A REPLY