প্রাকৃতিক উপায়ে হোক রূপচর্চা

প্রাকৃতিক উপায়ে হোক রূপচর্চা

SHARE
natural skin care

আজকাল ত্বকের যত্নে আমরা অনেকাংশেই নির্ভরশীল বাজারের নামী-দামী প্রসাধনীর উপর। যার প্রভাব পড়ে আমাদের ত্বকে। অস্বাস্থ্যকর জীবন যাপন আর লম্বা সময় ধরে ত্বক ফর্সা করার ক্রীম ব্যবহারে যা রাসায়নিক নির্ভর প্রসাধন সামগ্রী, ব্যবহারের ফলে আপনার ত্বক আর ও কালো ও প্রাণহীন হয়ে উঠতে পারে। আজ জানবো ত্বক, চুল, নখ, হাত, পায়ের যত্ন নিতে কী ধরনের প্রাকৃতিক উপাদান ঠিক কিভাবে ব্যবহার করবেন। এখন থেকে প্রাকৃতিক উপায়ে হোক রূপচর্চা-

শুষ্ক ত্বকের জন্য কফিঃ

কফির গুড়ো শরীরের বা ত্বকের জন্য স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। কফির একমুঠো দানা গোসলের সময় নিয়ে পুরো শরীরের ভালো করে ঘসে, অল্প গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এবার গায়ে হাত দিয়ে দেখুন, দেখবেন ত্বক অনেকটা মোলায়েম।

মুখের ত্বকে গমের ভুসিঃ

দুই চামচ গমের ভুসি, এক চামচ সাদা টক দই আর এক চামচ মধু ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার চোখ আর ঠোঁট বাকি রেখে সারা মুখ এবং গালায় ভালো করে এই মাস্কটা লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন৷। দেখবেন ত্বক পরিষ্কার আর মসৃণ হয়ে গেছে।

সুন্দর পায়ের জন্যঃ

পানিতে অলিভ ওয়েল বা জলপাইয়ের তেল দিয়ে পা দু’টো কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। তারপর লবণ দিয়ে পা দু’টোকে ভালো করে ঘসে ঘসে ধুয়ে ফেলুন। এবার পা মুছে একটু বেশি পরিমাণ ক্রিম লাগিয়ে নিন। এতে পায়ের ত্বক হবে সুন্দর আর এটা শক্ত করবে নখকেও।

সিল্কি চুলের জন্যঃ

চুলে শ্যাম্পু করার আগে মাথার গোড়ায় বাদাম তেল বা নারকেল তেল লাগিয়ে তোয়ালে দিয়ে পুরো মাথাটা ঢেকে রাখুন। এরপর তার ঠিক আধ ঘণ্টা পর ক্যামেলিয়া চায়ের পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এমন চুল অনেকের ইর্ষার কারণ হতে পারে কিন্তু।

 

LEAVE A REPLY