নোয়াখালীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবদল নেতা নিহত

নোয়াখালীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবদল নেতা নিহত

SHARE
Jubo Dal leader killed in 'gunfight' in Noakhali

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় গ্রেপ্তার হওয়া যুবদলের এক নেতা পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

গতকাল বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে উপজেলার আমনুল্লাপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণরামপুর এলাকায় কথিত এই বন্দুকযুদ্ধ হয়।

নিহত ব্যক্তির নাম মো. আলম (৩২)। বাবার নাম আবুল কাসেম। বাড়ি আমনুল্লাপুরের পার্শ্ববর্তী আলাইয়াপুর ইউনিয়নের ভীপপুর গ্রামে।

মো. আলম স্থানীয় ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি ও আলাইয়ারপুর ইউনিয়ন যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন বলে জানান আলাইয়াপুর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেন মানিক। পুলিশ পরিচয়ে তাঁকে উঠিয়ে নেওয়া হয়েছিল।

পুলিশের ভাষ্য, ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, একটি পিস্তল ও বেশ কয়েকটি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাজেদুর রহমান বলেন, আলমের বিরুদ্ধে ডাকাতি, অস্ত্র, বিস্ফোরক দ্রব্যসহ বিভিন্ন আইনে ১০টি মামলা আছে। গত মঙ্গলবার ভোরে তাকে তার গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। কিন্তু তদন্তের স্বার্থে তা গোপন রাখা হয়। তাকে নিয়ে গত রাতে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় আগে থেকে ওত পেতে থাকা আলমের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। দুই পক্ষের বন্দুকযুদ্ধের মধ্যে সহযোগীদের গুলিতে আলম ঘটনাস্থলে নিহত হন।

এলাকাবাসী জানায়, গত ২২ আগস্ট মঙ্গলবার ৪নং আলাইয়ারপুর ইউনিয়নের বালুচরা গ্রামের কোরষ পাটোয়ারী বাড়ির আবুল কাশেমের একমাত্র ছেলে আলম রাতে তার বাড়িতে ঘুমন্ত অবস্থায় ছিল। এসময় সাদা পোশাকদারী লোকজন তাকে চোখ বেঁধে গাড়িতে তুলে নেয়। এরপর থেকে তার পরিবারের লোকজন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন করে। পুলিশ প্রথমে বিষয়টি অস্বীকার করে।

 

LEAVE A REPLY