নিষিদ্ধ হতে পারে ‘রইস’

নিষিদ্ধ হতে পারে ‘রইস’

SHARE
Reise-may be baned

শাহরুখ খানের সদ্য মুক্তি পাওয়া ‘রইস’ ছবিটি নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছে উগ্র হিন্দুবাদী সংগঠন ‘বিশ্ব হিন্দু পরিষদ’। ‘রইস ডনদের কুখ্যাতিকে গৌরবান্বিত করছে’, এই যুক্তিতেই ‘রইস’ নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। এছাড়া একই দাবিতে ‘রইস’ নিষিদ্ধের কথা বলেছে শিবসেনাও।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের পক্ষ থেকে যুক্তি হল “ভারতে আরও এমন অনেক মহান ব্যক্তিত্ব রয়েছে যাদের ওপর সিনেমা তৈরি করা যায়। কিন্তু খান (শাহরুখ খান) আবদুল লতিফকেই বেছে নিয়েছেন, যিনি একজন কুখ্যাত ক্রিমিনাল। খান (শাহরুখ খান) যদিও বলেছেন রইস ছবি পুরোটাই কাল্পনিক চিত্রনাট্যের ওপর নির্মিত। তবে এটা সবাই জানেন মাফিয়া ডন আবদুল লতিফের জীবনের প্রেক্ষাপট নিয়েই এই সিনেমা তৈরি করা হয়েছে”।

শুধু তাই নয় বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তীক্ষ্ণ অভিযোগ থেকে বাদ যাননি পাকিস্তানের অভিনেত্রী মাহিরা খানও। ভারতের বিরুদ্ধে বিতর্কিত মন্তব্য করা মাহিরাকেও এই ছবিতে নিয়েছেন বলিউডের বাদশা, এই অভিযোগও করেছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।

এই পরিস্থিতে অবশ্য শাহরুখ, মাহিরা কিংবা টিম রইসের পক্ষ থেকে এখনও পর্যন্ত কোন বিবৃতি আসেনি। বরং এর আগে বিতর্ক হতে পারে তা আন্দাজ করতে পেরে মাহিরা খানকে ভারতেই আনেননি কিং খান। দুবাই থেকে স্কাইপ প্রযুক্তির মাধ্যমে ভারতে রইসের প্রচার জুড়ে ছিলেন মাহিরা।