Home লাইফস্টাইল নতুন মা কিছু বিষয় খেয়াল রাখুন

নতুন মা কিছু বিষয় খেয়াল রাখুন

নতুন মা হওয়া একটি অসামান্য অবস্থা, এবং আপনি নিজেকে সুস্থ রাখতে সময় দিতে হবে। এই সময়ে নবজাতকের যত্ন নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নিচে কিছু প্রাথমিক পরামর্শ দেওয়া হলো:

দুধ প্রদান: নবজাতকের জন্মের প্রথম ঘণ্টায় শিশু বেশ সতেজ ও সতর্ক থাকে। জন্মের ২ থেকে ৪ ঘণ্টার মধ্যে শিশু গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন হয়ে যেতে পারে।
স্তন্যদান শুরু করার প্রথম ঘণ্টার মধ্যেই মাতৃদুগ্ধ পান শুরু করানো উচিত।
নবজাতকের স্বাভাবিক তাপমাত্রা ৩৬.৫ ডিগ্রি থেকে ৩৭.৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের মধ্যে রাখতে হবে।
বুকের দুধ প্রদান: নবজাতকের খাওয়া আগেই বুকের দুধ দেওয়া ভালো। এরপর থেকে ছয় মাস বয়স পর্যন্ত শিশুকে শুধু বুকের দুধ দিন, আর কিছু না।
প্রথম দিকে বুকের দুধ খাওয়াতে একটু সমস্যা হতে পারে, মনে হতে পারে শিশু যথেষ্ট দুধ পাচ্ছে না। কিন্তু ঘাবড়াবেন না।
স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা: শিশুর ঘুমের সময় শিশু যত্ন নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। শিশুর বিছানা সঠিকভাবে সাজানো উচিত।শিশুর জন্য নিরাপদ ঘর তৈরি করা অত্যন্ত জরুরি। এখানে কিছু পরামর্শ দেওয়া হল যা আপনার শিশুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সাহায্য করবে:বৈদ্যুতিক সকেট ও তারের নিরাপত্তা:
সকেট ঢেকে রাখুন এবং তারগুলি শিশুর নাগালের বাইরে রাখুন।
বৈদ্যুতিক সামগ্রী যেমন হেয়ার ড্রায়ার, আয়রন ইত্যাদি ব্যবহারের পর সবসময় সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিন।
আসবাবের নিরাপত্তা:আসবাবের তীক্ষ্ণ ধার নরম কিছু দিয়ে মুড়ে দিন।
আসবাব যেন সহজে উল্টে না যায় এমনভাবে স্থাপন করুন।
ছোট জিনিসপত্রের নিরাপত্তা:বঁটি, চাকু, কয়েন, ব্যাটারি ইত্যাদি শিশুর নাগালের বাইরে রাখুন।
জানালা ও বারান্দার নিরাপত্তা:জানালা ও বারান্দায় নিরাপত্তা গ্রিল লাগান।
মেঝে ও কার্পেটের নিরাপত্তা:মেঝে পরিষ্কার রাখুন এবং পিচ্ছিল না হওয়া নিশ্চিত করুন।
কার্পেটের কোনা যেন উঠে না যায় এমনভাবে স্থাপন করুন। এই পরামর্শগুলি মেনে চললে আপনার শিশুর জন্য নিরাপদ পরিবেশ তৈরি করা সম্ভব হবে।