নজরুল উৎসব উদযাপন

নজরুল উৎসব উদযাপন

SHARE
Nazrul utsob-chayanot

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৮তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ছায়ানট মিলনায়তনে গতকাল (বুধবার) থেকে শুরু হয়েছে ২দিন ব্যাপী নজরুল উৎসব

প্রথম দিন ছিল কথন, গান, আবৃত্তিসহ নানা আয়োজন। এদিন সন্ধ্যায় ছায়ানটের ছোটদের দল পরিবেশন করে গান ‘ও ভাই খাঁটি সোনার চেয়ে খাঁটি’। এরপর স্বাগত বক্তব্য রাখেন ছায়ানটের সহ-সভাপতি খায়রুল আনাম শাকিল। বক্তৃতা দেন কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক। এছাড়া ছিল নাচ, গান ও আবৃত্তি। ‘আজি রক্ত নিশিভোরে’ গানের সঙ্গে নৃত্যগীত পরিবেশন করে ছায়ানটের বড়দের দল।

একক সঙ্গীতে ডালিয়া নওশীন ‘তোমার বুকের ফুলদানিতে’, মোহিত খান ‘ফুলের জলসায় নীরব কেন কবি’ গানগুলো পরিবেশন করেন। একক আবৃত্তি করেন ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্মেলিত কণ্ঠে ‘তোরা সব জয়ধ্বনি কর’ গানের মধ্য দিয়ে শেষ হয় প্রথম দিনের আয়োজন।

আজ অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিনেও রয়েছে নানা আইয়োজন। নাচ,গান,আবৃতি এসব নানা আয়জনের মাধ্যমে শেষ হবে এবারের নজরুল উৎসব

বিংশ শতাব্দীর অন্যতম জনপ্রিয় অগ্রণী বাঙালি কবি, ঔপন্যাসিক, নাট্যকার, সঙ্গীতজ্ঞ ও দার্শনিক যিনি বাংলা কাব্যে অগ্রগামী ভূমিকা রাখার পাশাপাশি প্রগতিশীল প্রণোদনার জন্য সর্বাধিক পরিচিত তিনি হলেন কাজী নজরুল ইসলাম। তিনি বাংলা সাহিত্য, সমাজ ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ব্যক্তিত্ব হিসেবে উল্লেখযোগ্য। বাঙালী মণীষার এক তুঙ্গীয় নিদর্শন নজরুল। তিনি বাংলা ভাষার অন্যতম সাহিত্যিক এবং বাংলাদেশের জাতীয় কবি। প্রতিবছর তার জন্মজয়ন্তীতে ছায়ানটে আয়োজিত হয়ে আসছে নজরুল উৎসব। তাঁর কবিতায় বিদ্রোহী দৃষ্টিভঙ্গির কারণে তাঁকে বিদ্রোহী কবি নামে আখ্যায়িত করা হয়েছে। তাঁর কবিতার মূল বিষয়বস্তু ছিল মানুষের ওপর মানুষের অত্যাচার এবং সামাজিক অনাচার ও শোষণের বিরুদ্ধে সোচ্চার প্রতিবাদ।