নখের সাজে নেইলপলিস

নখের সাজে নেইলপলিস

SHARE
Beautiful nail with nailpolish

নখ শরীরের ক্ষুদ্রতম একটি অংশ হলেও সুন্দর নখ সব নারীরই কাম্য। আর সুন্দর ও ঝকঝকে নক সবারই পছন্দের। নখ রাঙিয়ে বা সাজিয়ে আকর্ষণীয় করতে চায় সব নারীই। এখন পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে হাত-পায়ের নখে নীল, সবুজ, রেডিয়াম আর কালো-সাদা প্রায় সব রং শোভা পায়। আজ আমরা জানবো নখের সাজে নেইলপলিস

রাঙানোর পাশাপাশি নখ ও হাতের যত্নের ব্যাপারে এখন অনেকেই বেশ সচেতন। নখ নিয়েই মেয়েরা অনেক ধরনের স্টাইল করতে ভালবাসেন আজকাল। সেক্ষেত্রে শুধু একরঙা পলিশে এখন আর চাহিদা মিটছে না। নানা ডিজাইন করে নখ এমনভাবে সাজিয়ে তুলছেন যেন এটি একটি ছোট ক্যানভাস।

নখ রাঙাতে এখন সীমানা অতিক্রম করেছে রং। বাজারে রয়েছে নানা ব্র্যান্ডের এবং বিভিন্ন দামের নেইল পলিশের সমাহার। তবে নখ রাঙানোর আগে এবং পরে বেশকিছু বিষয় লক্ষ্য রাখতে হয়, অবলম্বন করতে হয় কিছু কৌশল-

নখ রাঙানোর আগে অবশ্যই নখের শেপ ঠিক করে নিন। নখ বেশি বড় হলে শেপ নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই পলিশ দেয়ার আগে নখের শেপ ঠিক করে নিন। আপনার আঙ্গুলের আকার অনুযায়ী মানানসই শেপে কেটে নিন।

নতুন নেইলপলিশ ব্যবহারের আগে অবশ্যই আগের নেইলপলিশ ভাল করে তুলে ফেলতে হবে। এর জন্য প্রথমে ভাল রিমুভার তুলায় ভিজিয়ে নখে ঘষে রং তুলুন। কুসুম গরম পানিতে শ্যাম্পু এবং একটু ভিনেগার দিন। তাতে হাত পা ১৫-২০ মিনিট ডুবিয়ে বসে থাকুন। এরপর ব্রাশ দিয়ে একটু ঘষে পরিষ্কার করে নিন। এতে নখের উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে। হাত শুকিয়ে তবেই নতুন করে নেইলপলিশ লাগাতে হবে। সবসময় ভাল ব্র্যান্ডের নেইলপলিশ বেছে নিন। যা বেশি টেকসই হওয়ার পাশাপাশি নখেরও ক্ষতি করবে না।

নেইলপলিশ লাগানোর আগেই বাছাই করতে হবে নেইল পলিশের রং। প্রথমেই নিজের ত্বকের সঙ্গে কী ধরনের রং মানানসই সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। উজ্জ্বল ত্বকে প্রায় সব ধরনের রংই মানিয়ে যায়। তবে কিছুটা শ্যামলা রং এর ক্ষেত্রে বেশি হাইলাইট বা উজ্জ্বল রং বেছে না নেয়াই ভাল।

বর্তমানে পোশাকের রঙের সঙ্গে মিল করার জন্য নেইলপলিশ পাওয়া যায়। লাল, গোলাপি, কমলা, খয়েরি, বেগুনী ছাড়াও নীল, হলুদ, সবুজ, রেডিয়াম কালার এবং সাদা-কালো নেইলপলিশ পাওয়া যাচ্ছে যে কোন কসমেটিকসের দোকানেই। তবে নীল, সবুজ, হলুদ কারও পছন্দের তালিকায় না থাকলে পোশাকের রঙের সঙ্গে মানিয়ে যায় এমন যে কোন রংই নখে ব্যবহার করা যায়। নখের রং নির্বাচনের আগে কোথায় যাচ্ছেন, অবশ্যই সে বিষয়টি মাথায় রাখবেন। পার্টি বা অনুষ্ঠান হলে ভিন্ন বিষয়। অফিস, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশি হাইলাইটিং বা উজ্জ্বল রং ব্যবহার না করাই ভাল।

অনেক সময় নখে সাদা সাদা দাগ পড়ে। এগুলোর অন্যতম একটি কারণ হতে পারে নেইলপলিশের কেমিক্যাল। এই কারণে ভাল ব্র্যান্ডের নেইলপলিশ বেছে নেয়া জরুরী। একটানা নেইলপলিশ ব্যবহার করবেন না। নতুন নেইলপলিশ ব্যবহারের আগে অন্তত কিছুদিন নেইলপলিশ ছাড়াই থাকুন।

পলিশ লাগান কয়েক পরত

যে রঙের নেইলপলিশ দিন না কেন, আগে একটা হালকা পরত পলিশ করে নিন। এটি যতটা সম্ভব হালকা হতে হবে। প্রথমে হালকা করে একবার নেইলপলিশ দিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। রং শুকিয়ে গেলে আবার গাঢ় করে নেইলপলিশ লাগান।

নেইল পলিশের ঘনত্ব বেশি হলে মসৃণ পরত করতে সমস্যা হয়। সেক্ষেত্রে সামান্য রিমুভার মিশিয়ে নেইলপলিশ পাতলা করে নিতে পারেন। এতে তুলির আঁচড় দিতেও ঝক্কি কমে যাবে।

সপ্তাহে একদিন অন্তত হাত এবং নখ পরিষ্কার করা উচিত। এর জন্য ভাল কোন পার্লারে গিয়ে মেনিকিউর করানো যায়। আবার এ কাজটি ঘরে বসেই চট জলদি সেরে নিতে পারেন। হালকা গরম পানিতে কিছুটা লেবুর রস ও লবণ গুলিয়ে এর মধ্যে শ্যাম্পু মিশিয়ে হাত কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রাখুন। তারপর ব্রাশ দিয়ে হাত এবং নখের গোড়ায় ঘষে পরিষ্কার করতে হবে।