দুই যুগ পর বিটিভিতে গান গাইলেন রুনা লায়লা

দুই যুগ পর বিটিভিতে গান গাইলেন রুনা লায়লা

SHARE
Runa laila-BTV

উপমহাদেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী রুনা লায়লা। ১৯৬৯ সালে সংগীত ভুবনে পা রাখেন তিনি। সুদীর্ঘ বর্নাঢ্য ক্যারিয়ারে মোট ১৮টি ভাষায় ১০ হাজারেরও বেশি গান করেছেন এই সাড়া জাগানো সংগীতশিল্পী। এবারে দুই যুগ পর বিটিভিতে গান গাইলেন রুনা লায়লা

আসছে ঈদে বাংলাদেশ টেলিভিশনের জন্য নির্মিত হয়েছে একটি গানের অনুষ্ঠান। উক্ত অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করতে দেখা যাবে বরেণ্য এই শিল্পীকে। অনুষ্ঠানটির নাম ‘তোমাদেরই গান শুনাব’। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রায় দুই যুগ পর বিটিভির দর্শকদের জন্য গান গাইলেন তিনি।

বিটিভির মহাপরিচালক এস. এম. হারুন অর রশীদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং মাহবুবা ফেরদৌস’র প্রযোজনায় নির্মিত হয়েছে অনুষ্ঠানটি। সম্প্রতি বিটিভিতে এর রেকর্ডিং সম্পন্ন হয়েছে। বিটিভিতে ঈদের অনুষ্ঠানমালায় ‘তোমাদেরই গান শুনাবো’ অনুষ্ঠানটি প্রচার হবে।

তবে চমক হলো এবারের অনুষ্ঠানটি একেবারেই অন্যরকম। কারণ এটি উপস্থাপনা করেছে অাঁখি আলমগীর এবং অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে দেখা যাবে নায়ক-নির্মাতা-প্রযোজক এবং রুনা লায়লার স্বামী আলমগীরকে।

এ প্রসঙ্গে কালজয়ী এই শিল্পী বলেন, প্রায় দুই যুগ পর বাংলাদেশ টেলিভিশনের জন্য গান গাইলাম। সত্যিই বেশ ভালো লেগেছে। সেট ডিজাইন এবং আনুষাঙ্গিক অন্যান্য আয়োজন বেশ গোছানো ছিল। সব মিলিয়েই কাজটি দারুণ হয়েছে। তাছাড়া অাঁখির উপস্থাপনাও খুব সাবলীল ছিল। পুরো অনুষ্ঠানটিই আশা করছি দর্শকের কাছে উপভোগ্য হবে। এই অনুষ্ঠানে আমি বিটিভির দর্শকদের জন্য ৯টি গান পরিবেশন করব। এগুলো হচ্ছে- ‘প্রতিদিন তোমায় দেখি সূর্যের আগে’, ‘গানেরই খাতায় স্বরলিপি লিখে’, ‘যখন থামবে কোলাহল’, ‘ভুলিতে পারিনে তাই আসিয়াছি পথ ভুলি’, ‘আমায় ভাসাইলিরে’, ‘কার তরে নিশি জাগো রাই’সহ আরও দুটি গজল।

উল্লেখ্য, রুনা লায়লা বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রথম ১৯৭৪ সালে সংগীত পরিবেশন করেন। এরপর আরও তিন-চারবার সেখানে সংগীত পরিবেশন করেছেন। তিনি সর্বশেষ ১৯৯৪ সালে বিটিভিতে সংগীত পরিবেশন করেছিলেন।