Home লাইফস্টাইল ত্বকের পরিচর্যায় নিম পাতার ব্যাবহার

ত্বকের পরিচর্যায় নিম পাতার ব্যাবহার

অনেক আগে থেকেই সর্বরোগের ঔষধ হিসেবে জনপ্রিয় নিমপাতা। রূপচর্চায় নিমপাতার ব্যবহার প্রাচীনকাল থেকেই। এখনো বিভিন্ন ঔষধ এবং প্রসাধনীতে নিমপাতার ব্যবহার দেখতে পাওয়া যায়। তাই প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে রূপ সমস্যার সমাধানে এখনো অনেকেই ব্যবহার করে থাকেন এই বহুগুণসম্পন্ন নিমপাতা। চলুন দেখে নিই এমনই ৫ টি রূপ সমস্যা এবং এর সমাধানে নিমপাতার ব্যবহার।

১) ব্রণ সমস্যা সমাধান

১ লিটার পানিতে ২-৩ মুঠ নিমপাতা দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। পানি সবুজ রঙ ধারণ করলে তা ছেঁকে ফ্রিজে রেখে বরফ জমিয়ে ফেলুন। প্রতিদিন সকাল বিকাল এই বরফ মুখের ত্বকে ঘষে নিন। ব্রণের সমস্যা বেশ দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে।

২) ত্বকের সমস্যা সমাধান

নিমপাতাতে রয়েছে অ্যান্টিফাঙ্গাল ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা ত্বকের যেকোনো সমস্যা সমাধানে বিশেষভাবে কার্যকরী।চামড়ার ইনফেকশন সহ সকল ধরণের সমস্যা দূর করতে নিমপাতার জুড়ি নেই।

৩) খুশকি সমস্যা সমাধান

আমাদের মধ্যে অনেকের ই রয়েছে খুশকির সমস্যা।বিশেষ করে শীতকালে যেন একটু বেশিই বেড়ে যায় এই সমস্যাটি। তবে এই সমস্যার সমাধানও করবে নিমপাতা। নিমপাতা বেটে মাথার ত্বকে ভালো করে ঘষে লাগিয়ে নিন। ১-২ ঘণ্টা রেখে ভালো করে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন চুল ও মাথার ত্বক। পরের দিন শ্যাম্পু করে নিন। এতে করে খুশকির সমস্যা থেকে তো রেহাই পাবেনই সেই সাথে নতুন করে চুল গজাতেও সহায়তা করবে এটি।

৪) ত্বকে বয়সের ছাপ দূর করতে

নিমপাতায় রয়েছে ফ্যাটি অ্যাসিড ও ভিটামিন ই যা ত্বকের ইলাস্টিসিটি ধরে রাখতে সহায়তা করে এবং ত্বককে টানটান রাখে। এতে করে ত্বকে বয়সের ছাপ পড়ে অনেক ধীরে। এছাড়াও নিমের হাইঅ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের কোষের ক্ষতি রোধ করে এবং ক্ষতি পূরণেও ভূমিকা রাখে। এতে ত্বক বুড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা পায় অতি সহজেই।

৫) শীতে ত্বকের সুরক্ষায়

যাদের শীতকালে ত্বকের অ্যালার্জির সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য নিমপাতা বেশ ভালো একটি ঔষধ। নিমপাতার তেল ব্যবহারে ত্বকের লাল রযাতাশ উঠার সমস্যা, চুলকোনি এবং ত্বক ফুলে উঠার সমস্যা দূর করে। অলিভ অয়েলে নিমপাতা ফুটিয়ে নিন। এবার এই তেল ব্যবহার করুন অ্যালার্জির সমস্যায়।