তিন দিনেই একশ কোটি ছাড়ল সুলতান

তিন দিনেই একশ কোটি ছাড়ল সুলতান

SHARE
তিন দিনেই একশ কোটি ছাড়ল সুলতান

ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের একটি ছোট শহরের নামী কুস্তিগির সুলতান আলি খান (সালমান খান)। সে একসময় হয়ে যায় আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়ন। এই সাফল্য তাকে শেখায় স্বপ্ন দেখতে। সে স্বপ্ন দেখে সে একদিন অলিম্পিকে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করবে। অনেকে মনে করে তার এই স্বপ্ন এক ধরনের বাড়াবাড়ি ছাড়া কিছুই নয়। সুলতানের শহরে আর এক নারী কুস্তিগির আরফা (আনুশকা শর্মা)। আরফাও বড় স্বপ্ন দেখে, তাই তার চেয়ে শক্তিশালী পুরুষ কুস্তিগিরদেরও সে চ্যালেঞ্জ করতে ছাড়ে না। তাদের এই খ্যাতির কারণেই একদিন আঞ্চলিক এই দুই মল্লযোদ্ধা মুখোমুখি হয়। সুলতান তার প্রতি আকৃষ্ট হয়। প্রাথমিক বাধার পর একসময় আরফাও সুলতানের প্রতি আকৃষ্ট হয়। তাদের দুজনের প্রত্যাশা আর স্বপ্ন একসময় এক হয়ে যায়। কিন্তু স্বপ্নের পথ যে সবসময় মসৃণ হবে তা তো নয়। পরম জয়ের আগে তো অনেকবার হোঁচট খেতেই হবে। আর তাই সুলতানকে বেশ মূল্যই দিতে হয়। কিন্ত একসময় সে আবার ঘুরে দাঁড়ায়। তার হারানো মর্যাদা প্রতিষ্ঠার জন্য সে এবার কোমর বেঁধেই নামে। কিন্ত, আবার প্রতিষ্ঠা পাবার জন্য সুলতান কি দেরি করে ফেলেছে? সে শপথ করে সব বাধা ঠেলে সে এগিয়ে যাবে বলে। তার আর  হারাবার কিছুই নেই। জীবনকে ফিরে পেতে তাই সে বাজি ধরে তার নিজের জীবনটাকেই। সুলতানের নীতি হল: কুস্তি কোনও খেলা নয় এটি হল এর মাঝে যা আছে তার সঙ্গে যুদ্ধ করা।

জীবনী চলচ্চিত্র নিয়ে কিছুটা ঝুঁকি তো থেকেই যায়। সালমানের মত শীর্ষ তারকা থাকার পরও তাই অনেকে চলচ্চিত্রটি নিয়ে সন্দেহ পোষণ করে আসছিল। কিন্ত চলচ্চিত্রটির পরিচালক এমন করে সাজিয়েছেন তাতে তা নারী, পুরুষ, শিশু আর সব বয়স শ্রেণীর দর্শককে সমান আকর্ষণ করেছে।

এবারের ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পাওয়া সালমান খানের চলচ্চিত্র ‘সুলতান’ বুধবার মুক্তি পেয়ে যা আয় করেছে এই বছর মুক্তি পাওয়া অধিকাংশ চলচ্চিত্রই সব মিলিয়ে এতো আয় করতে পারেনি। সূচনা দিনের ৩৬.৫৪ কোটি রুপি আয় দেখে সহজেই অনুধাবন করা যায় দুদিনের বর্ধিত সপ্তাহান্তে চলচ্চিত্রটির আয় ১৫০ কোটি রুপি ছাড়িয়ে যেতে পারে। বলাই বাহুল্য ঈদের ছুটির পুরো সুবিধাটি পেতে যাচ্ছে ‘সুলতান’।

এই বছর মুক্তি পাওয়া ‘আজহার’ সব মিলিয়ে আয় করেছে ৩৩ কোটি রুপি। ‘সর্বজিত’ ছবিটির মোট আয় ২৯ কোটি রুপি। ‘সনম রে’ এবং ‘কেয়া কুল হ্যায় হাম’ আয় করেছে যথাক্রমে ৩০.৩২ কোটি রুপি এবং ৩০.২৫ কোটি রুপি। সর্বকালের হিসেবে প্রথম দিনের আয়ের ক্ষেত্রে ‘সুলতান’ এর আগে আছে ‘দ্য হ্যাপি নিউ ইয়ার’ (৪৪.৯৭ কোটি রুপি) এবং ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ (৪০.৩৫ কোটি রুপি)।

বৃহস্পতিবার ঈদের দিন ‘সুলতান’ আয় করেছে ৩৭.২ কোটি রুপি। শুক্রবারের ৩২.১৫ কোটি রুপি আয় নিয়ে প্রথম তিনদিনেই ফিল্মটি আয় করেছে ১০৫.৮৯ কোটি রুপি। সালমানের ১০০ কোটি রুপি আয় সীমা অতিক্রমকারী দশম ফিল্ম এটি।

ভারতের বাইরে চলচ্চিত্রটি তিন দিনে আয় করেছে ৫০ কোটি রুপিরও বেশি। এ থেকেই বোঝা যায় ‘সুলতান’ এই বছরের সবচেয়ে সফল চলচ্চিত্র হিসবে স্বীকৃতি পাবে ক্রমেই। এই আয়ের ধারায় কাল শুক্রবার ফিল্মটি ‘হাউসফুল থ্রি’র আয় (১০৭.৭ কোটি রুপি) অতিক্রম করবে এবং রবিবার সকালেই ছাড়াবে ‘এয়ারলিফ্ট’ ফিল্মটির আয় (১২৭.৮ কোটি রুপি)। আর পাঁচদিনেই ‘সুলতান’ ২০১৬’র সফলতম চলচ্চিত্রের মর্যাদা পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আলি আব্বাস জাফর পরিচালিত চলচ্চিত্রটিতে সালমান অভিনয় করেছেন মল্লযোদ্ধা সুলতান আলি খানের ভূমিকায়। এতে আরও অভিনয় করেছেন আনুশকা শর্মা, রণদীপ হুদা এবং অমিত সাথ।