জামিন পেয়ে ভক্তদের মাঝে সালমান

জামিন পেয়ে ভক্তদের মাঝে সালমান

SHARE
Fans cheer as Salman Khan gets bail

দুটি বিরল প্রজাতির কৃষ্ণসার হরিণ শিকারের দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে সালমানকে পাঁচ বছরের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠান যোধপুর আদালত। দুই রাত (বৃহস্পতি ও শুক্রবার) কারাবাস শেষে গতকাল ৫০ হাজার রুপি মুচলেকার বিনিময়ে সালমানকে জামিন দেওয়া হয়। আদালতে জামিন পেয়ে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই চার্টার্ড বিমানে মুম্বাইয়ে ফেরেন ভাইজান। এদিকে প্রিয় নায়কের জামিন পাওয়ার খবরের পর থেকেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা সালমানের মুম্বাইয়ের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টের বাইরে অপেক্ষা করছিলেন তার অসংখ্য ভক্ত। অবশেষে সালমান বেরিয়ে আসেন। ব্যালকনিতে দাঁড়াতেই তুমুল উচ্ছ্বাসে ফেটে পড়েন ভক্তরা। এসময় সালমানের পাশে দেহরক্ষী ও পরিবারের লোকজন ছিলেন।

এসময় ক্যাটরিনাসহ সালমানের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন সোনাক্ষি সিনহা, রমেশ তৌরানি, স্নেহা উলাল, পুনম সিনহা, ডেইজি শাহ ও অমৃতা আরোরা। সালমানের সঙ্গে দেখা করে ছবিও তুলতে দেখা যায় সোনাক্ষি সিনহাকে। হ্যাশট্যাগ ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ দিয়ে সে ছবি ইনস্টাগ্রামে শেয়ার দেন সোনাক্ষি। যার ক্যাপশনে তিনি লিখেন, ‘প্রেরণা এবং প্রেরণার ক্ষেত্র। আমার সুরক্ষাকবচ। আমরা সবাই একসঙ্গে আছি, তোমাকে ফিরে পেয়েছি।’

উল্লখ, ১৯৯৮ সালের ১ ও ২ অক্টোবর যোধপুরে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ের মাঝে আলাদা আলাদা জায়গায় দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করেন সালমান খান। ওই সময় তার সঙ্গে ছিলেন সাইফ আলী খান, নীলম, টাবু ও সোনালী বেন্দ্রে।