ছেলেদের ফ্যাশনে ব্রেসলেট

ছেলেদের ফ্যাশনে ব্রেসলেট

SHARE
Stylest breslet

বর্তমানে ছেলেদের ফ্যাশনে একটি বিশেষ স্থান দখল করে নিয়েছে ব্রেসলেট। কুল বয় লুকস পেতে কম বেশি অনেক ছেলেরাই মেতে উঠেছে ব্রেসলেট পরার জন্য। বাজার মেলে বহু রকমের ব্রেসলেট। চাহিদার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে নতুন নকশা ও উপাদানের ব্রেসলেটও। আসুন তবে জেনে নিই ছেলেদের ফ্যাশনে ব্রেসলেট এর আধ্যিপত্য সম্পর্কে-

পিতল, মাটি, কাঠ, ইস্পাতের ওপর রাবার, চামড়া, কাপড়, তামা, লোহা, পুঁতি, অষ্ট ধাতু, সুতা, এমনকি পশুর হাড় দিয়েও তৈরি করা হচ্ছে ব্রেসলেট। আরও আছে নমনীয় বা ফ্লেক্সিবল ব্রেসলেট। এই ব্রেসলেট ইচ্ছামতো ছোট-বড় করা যায়।

তবে এখন নতুন হলো কম্বো ব্রেসলেট। দুই থেকে পাঁচটি আলাদা ধরনের উপাদান দিয়ে তৈরি ব্রেসলেট একসঙ্গে পরা হচ্ছে এখন। রাবার ও সুতার এক ডজন চিকন ব্রেসলেটের সেটও পাওয়া যায়। দেশি উপকরণে হাতে তৈরি ব্রেসলেটও পাবেন।

এছাড়া বড় অনুষ্ঠানে গেলে চেইন বা ঘড়িসহ নানা নকশার ব্রেসলেট পরছেন তরুণেরা। তবে ছেলেদের হাতে সাধারণত ধাতব, রাবার বা চামড়ার ব্রেসলেট বেশি দেখা যায়। এগুলোতে অনেক সময় প্যাঁচা, হাতি, ঘোড়াসহ নানা মোটিফ ব্যবহার করা হচ্ছে বা ছিদ্র করে কোনো নকশা বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

ফ্যাশন বিষয়টি মানুষে মানুষে বদলে যায়। সে জন্য প্রত্যেকের পছন্দের পোশাকের সঙ্গে মানানসই যেকোনো অনুষঙ্গ পরা গুরুত্বপূর্ণ।

ব্রেসলেট পরার বেলায় সব সময় মাথায় রাখতে হবে বাড়তি কিছু ফ্যাশন হিসেবে স্মার্ট নয়, চেষ্টা করা উচিত কম নকশার ব্রেসলেট পরার। যেকোনো ক্যাজুয়াল পোশাকের সঙ্গে পুঁতি বা চামড়ার ব্রেসলেট মানিয়ে যায়। তবে স্মার্ট ক্যাজুয়াল পোশাকে সোনা, রুপা বা তামার ব্রেসলেট খুব ভালো মানায়। আনুষ্ঠানিক পোশাকের সঙ্গে ইস্পাত বা এ ধরনের ধাতব ব্রেসলেট ভালো লাগে। সেমি ফরমাল পোশাকের সঙ্গে আবার চামড়া, কাঠ মানিয়ে যায় সুন্দরভাবে। তবে যাঁরা স্ট্রিট ফ্যাশন পছন্দ করেন তাঁরা রাবার, সুতা, ব্রোঞ্জ বা কাপড়ের ব্রেসলেট পরতে পারেন।

অনলাইনে ব্রেসলেট

ইন্টারনেটে ই-কমার্সের ওয়েবসাইটগুলোতে ভালো মানের ব্রেসলেট কিনতে পারছেন। দারাজ ডটকম, প্রিয়শপ ডটকম, আজকের ডিল ডটকমসহ বিভিন্ন অনলাইনভিত্তিক দোকানের মাধ্যমে নিয়মিত তরুণদের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে নিত্যনতুন নকশার ব্রেসলেট। ঢাকা ছাড়াও ঢাকার বাইরের ক্রেতারা অনলাইনের মাধ্যমে তাঁর পছন্দের ব্রেসলেটটি কিনে ফেলছেন। অনলাইনে ব্রেসলেটের দাম ৫০ থেকে ১৫০০ টাকা পর্যন্ত। তবে এর সঙ্গে ডেলিভারি চার্জ ৪০-১০০ টাকা যুক্ত হয়। প্রিয়শপ ডটকমের স্বত্বাধিকারী আশিকুল আলম খান জানালেন, ব্রেসলেট বর্তমান প্রজন্মের কাছে ফ্যাশনের অন্যতম একটি অনুষঙ্গ! তরুণদের কাছ থেকে পাওয়া নিয়মিত ফরমাশ আসছে, বোঝা যায় এটির জনপ্রিয়তা দিনে দিনে আরও বাড়ছে।

দরদাম

ব্রেসলেটের দাম নির্ভর করবে কেনার স্থান ও উপকরণের ওপর। দাম ১০ টাকাও হতে পারে আবার ২ হাজার টাকাও হতে পারে। সেইলরের দোকানে ৪৯০ টাকা থেকে শুরু হয়েছে ব্রেসলেটের দাম। সর্বোচ্চ ৯৯০ টাকা দামের ব্রেসলেট পাওয়া যাবে এখানে। বিদেশি ব্রেসলেটগুলোর দাম শুরু হয় ৬০০-৭০০ টাকা দিয়ে। পিতলের ব্রেসলেট ১৫০-৬০০ টাকা, পাথরের ব্রেসলেট ৮০ থেকে ১ হাজার ৮০০, হাড়ের ব্রেসলেট ৪০০-৮০০ টাকা, কম্বো ব্রেসলেটগুলো ৫০০ থেকে ৯০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায়। এ ছাড়া নিউমার্কেট, চাঁদনী চক, গাউছিয়া, আজিজ মার্কেট ঘুরে দেখা যায়, সেখানে ২০ থেকে শুরু করে ৫৫০ টাকার মধ্যে ব্রেসলেট পাওয়া যাচ্ছে। বড় দোকানগুলোতে বেশি দামের ব্রেসলেটের মধ্যে আছে গোল্ডপ্লেটেড ব্রেসলেট। দাম পড়বে ২০০ থেকে ৪ হাজার টাকার মধ্যে।