চোখের যত্ন নিবেন যেভাবে

চোখের যত্ন নিবেন যেভাবে

SHARE
Eye care

চোখ মনের কথা বলে। আর তাই চোখের যত্ন নেয়া খুবই দরকারী। আজ আমরা জানবো কিভাবে যত্ন নিলে ভালো থাকবে আপনার শরীরের এই গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গটির। আসুন জেনে নিই চোখের যত্ন নিবেন যেভাবে-

নিয়মিত  চোখের ব্যায়াম

প্রতিদিন সকালে, ঘুমানোর আগে বা চোখ অবসাদগ্রস্ত হলে চোখের ব্যায়াম করুন। যারা একটানা চোখ ব্যবহার করেন, যেমন- কম্পিউটারে লেখা, ছবি আঁকা, বেশি সময় ধরে পড়া- তারা ব্যায়াম বাদ দেবেন না। প্রথমে হাত ভালো করে ধুয়ে নিন। দুই হাতের তালু ঘষে তাপ উৎপন্ন হলে চোখে ৫ সেকেন্ডের জন্য গরম তালু লাগান। এভাবে ৫-১০ বার। চোখ ঘড়ির কাঁটার দিকে ১০ বার ঘোরান। এবার ঘোরান ঘড়ির কাঁটার উল্টো দিকে। হাত দূরত্বে কলম নিয়ে এর মাথায় তাকান। ধীরে ধীরে কলমটি ২৫ সেন্টিমিটারের মধ্যে নিয়ে আসুন। আবার দূরে নিয়ে যান। এভাবে ১০-১৫ বার। একটানা কম্পিউটারের স্ক্রিনে না তাকিয়ে আধা ঘণ্টা পর ৩০ সেকেন্ডের জন্য অন্যদিকে তাকিয়ে থাকুন। মিনিট তিনেকের জন্য চোখ বন্ধ করে বিশ্রাম নিন।

বিশ্রাম দিন চোখকে

ঘুমের সময় চোখ পুরোপুরি বিশ্রাম পায়। এ সময় চোখ ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পেতে কাজ করে। রাতে আট ঘণ্টা ঘুমান। দিনের বেলা কমপক্ষে এক ঘণ্টা চোখকে বিশ্রাম দিন। প্রতি ৫০ মিনিট কাজ করার পর চোখকে ১০ মিনিট বিশ্রাম দিন। চোখ বেশি ক্লান্ত হলে বিছানায় মিনিট দশেকের জন্য চোখ বুজে থাকুন।

দৃষ্টিবান্ধব খাবার

চোখের কাজ সুচারুভাবে সম্পন্ন করার জন্য প্রয়োজন চোখের পুষ্টি। ভিটামিন এ, সি ও ই এবং কপার ও জিঙ্ক চোখের দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সহায়তা করে। রোদের আলট্রাভায়োলেট রশ্মি চোখের সবচেয়ে সংবেদনশীল মেকুলাকে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ধ্বংস করে। তাই বৃদ্ধ বয়সে চোখের জ্যোতি কমে যায়। মেকুলার ধ্বংস প্রতিরোধ করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। সবুজ শাকসবজি, কুমড়া, গাজর, মিষ্টিআলু, ডিমের কুসুমে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। বয়স হলেই চোখে ছানি পড়ে। ছানি পড়া রোধ করে সালফার, সিস্টিন ও লেসিথিনসমৃদ্ধ খাবার। এগুলো পাবেন রসুন-পেঁয়াজে। জাম, আঙুর, ছোট মাছ ও কড মাছ চোখের জন্য উপকারী। প্রচুর পানি পান করুন।

চোখের জন্য ক্ষতিকর কাজ বাদ দিন

অনেকক্ষণ ধরে চোখ ডললে, ফ্লুরোসেন্ট বাতিতে তাকালে, বেশিক্ষণ কম্পিউটার স্ক্রিনে কাজ করলে, কম আলোতে লেখাপড়া করলে চোখের ওপর চাপ পড়ে। হ্রাস পায় দৃষ্টিশক্তি। এ অভ্যাসগুলো যতটা পারা যায় পরিহার করুন। ধূমপান করলে চোখের প্রেসার বাড়ে। ধূমপান একেবারে বাদ দিন। অন্য কেউ ধূমপান করলে সরে আসুন। রোদের আলট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে রক্ষা পেতে বাইরে বের হলে সানগ্গ্নাস ব্যবহার করুন।