গোলাপ জলের কিছু ভিন্ন ব্যবহার

গোলাপ জলের কিছু ভিন্ন ব্যবহার

SHARE
golap jol-uses

সৌন্দর্য বাড়াতে গোলাপ জলের কোনও বিকল্প নেই। শুষ্ক ত্বক হোক বা হোক কোন ব্রণের সমস্যা। সব ধরনের ত্বকের রোগ দূর করতে গোলাপ জল দারুন কাজে আসে। তাই তো এর এত জনপ্রিয়তা। প্রসঙ্গত, গোলাপ জল ত্বককে প্রয়োজনীয় আদ্রতা প্রদান করে। ফলে ত্বকের সৌন্দর্য আপনা থেকেই বৃদ্ধি পায়। আজ আমরা জানবো গোলাপ জলের কিছু ভিন্ন ব্যবহার সম্পর্কে- 

বডি লোশনের আগে ব্যবহার:

যাদের ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক এবং চামড়া ওঠার সমস্যা রয়েছে তারা প্রথমে ত্বকে গোলাপজল স্প্রে করে ভেজা অবস্থাতেই লোশন লাগিয়ে নিতে হবে। এতে ত্বক আর্দ্র থাকবে।

শিট মাস্কের নিচে ব্যবহার করুন:

আধুনিক রূপচর্চায় শিট মাস্ক বেশ জনপ্রিয় অনুষঙ্গ। মুখ ধুয়ে ভালোভাবে মুছে গোলাপ জলে তুলা ভিজিয়ে ত্বকে বুলিয়ে নিন অথবা স্প্রে করে মুখে লাগান। এর উপর শিট মাস্ক লাগান। এতে ত্বক আরও আর্দ্র থাকবে এবং মাস্কের কার্যকরিতাও বৃদ্ধি পাবে।

শেইভিংয়ের জ্বলুনি কমাতে:

দাড়ি কামানোর পর ত্বকে জ্বালাভাব হতেই পারে। এক্ষেত্রে শেইভের পর গালে খানিকটা গোলাপ জল লাগিয়ে নেওয়া যেতে পারে। এর ত্বক শীতলকারী উপাদান জ্বালাভাব কমিয়ে আরাম দেবে।

গোসলের পানিতে মিশিয়ে ব্যবহার:

সারাদিন খাটাখাটনির পর গোসল শরীরের ক্লান্তি ঝেরে ফেলতে সাহায্য করে। গোসলের পানিতে খানিকটা গোলাপ জল মিশিয়ে নিলে তা ক্লান্তি দূর করবে। তাছাড়া সুগন্ধিও ছড়াবে।

মেইকআপ সুন্দর রাখতে:

মেইকআপ সুন্দর রাখতে এবং দীর্ঘস্থায়ী করতে গোলাপ জল ব্যবহার করা যেতে পারে। মেইকআপের শুরুতে ত্বকে খানিকটা গোলাপ জল ছিটিয়ে নেওয়া যায়। আর শেষে গোলাপ জল স্প্রে করে নিলে মেইকআপ অনেকটা সময় স্থায়ী থাকবে।