গোপনে বিয়ে করলেন মল্লিকা

গোপনে বিয়ে করলেন মল্লিকা

SHARE
Mollika & her marriage issue

বলিউডের নায়িকা হলেও ঘুরে বেড়ান আন্তর্জাতিক সার্কিটে। অনেকদিন ধরেই দেশের বাইরে রয়েছেন এবং বেশ কিছুদিন ধরে প্রেমও করছিলেন এক বিদেশির সঙ্গে। এই বছরই ৪০-এ পা দিয়েছেন তিনি। অবশ্য মার্কিন সংস্কৃতিতে একটা কথা চালু রয়েছে, মেয়েদের ক্ষেত্রে অফিসিয়ালি বিয়ের বয়সের সীমা হল ৪০ বছর। হলিউডের তারকাদের প্রিয় বান্ধবী মল্লিকা সেই কথা মনে রেখেই কি চুপি চুপি সেরে ফেললেন বিয়েটা?

বলিউডের আকাশে-বাতাসে এমনই কথা ঘুরে বেড়াচ্ছে এখন। সম্প্রতি মুম্বইয়ের একটি সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেই যে তিনি কান চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিতে ফ্রান্সে পাড়ি দিয়েছিলেন, তার পর আর দেশমুখো হননি। তাদের বক্তব্য, মল্লিকা সম্ভবত তাঁর ফরাসি বয়ফ্রেন্ড সিরিল অক্সেনফ্যানস-কে বিয়ে করে ফেলেছেন।

মল্লিকা কান চলচ্চিত্র উৎসবের পরে বিয়েটা সেরেই ফেলেছেন এবং সুখে ঘরকন্না করতে শুরু করেছেন। এমনকী, ফরাসি পার্টনারকে ইমপ্রেস করতে ফ্রেঞ্চ কুকিং ক্লাসেও নাকি ভর্তি হয়েছেন তিনি। তবে এটা কি পুরোটাই গুজব নাকি সত্যি? এই উত্তরটা কিন্ত মিলছেনা এখনই।

মল্লিকার বয়ফ্রেন্ড (বা স্বামী?) প্যারিসের বাসিন্দা এবং একজন নামজাদা রিয়্যাল এস্টেট ব্যবসায়ী সিরিল অক্সেনফ্যানস। প্যারিসেই কয়েকজন বন্ধু মারফত মল্লিকার সঙ্গে আলাপ হয় সিরিলের। দেখামাত্রই নাকি প্রেমে পড়ে যান সিরিল। তারপর ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে মল্লিকাকে একটি দামি গাড়িও উপহার দেন তিনি।

প্রেমের গাড়ি গড়িয়ে চলতে থাকে। ইনস্টাগ্রামে সিরিলের সঙ্গে একাধিক রোম্যান্টিক ছবি আপলোড করেন মল্লিকা। তার মধ্যে একটির ক্যাপশন ছিল এই রকম— ‘প্রেমে পড়া খুবই সুন্দর একটা অনুভূতি যদি যাকে তুমি ভালবাস, সেও তোমাকে ভালবাসে।’