খালেদা জিয়ার ৫ বছরের কারাদণ্ড

খালেদা জিয়ার ৫ বছরের কারাদণ্ড

SHARE
Khaleda Zia sentenced to 5 years imprisonment

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার পর বিএনপির চেয়ারপার্সনকে নেয়া হচ্ছে পুরনো কারাগারে।

বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার সময় এ রায় ঘোষণা করেন বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান। রায় ঘোষণার সময় উপস্থিত ছিলেন খালেদা জিয়া ও আরো দুই আসামি।

এছাড়া তারেক রহমানসহ অন্য পাঁচ আসামিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড ও দুই কোটি ১০ লাখ করে জরিমানা করা হয়েছে। মামলার অপর আসামিরা হলেন,

  • বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান,
  • প্রধানমন্ত্রীর সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী,
  • বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল,
  • প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান
  • ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমদ

এর মধ্যে তারেক রহমান, কামাল সিদ্দিকি ও মমিনুর রহমান পলাতক। খালেদা জিয়া জামিনে রয়েছেন। আর সালিমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন কারাগারে আছেন।

এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায় শুনতে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১টা ৪৮ মিনিটে আদালতে হাজির হন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

বিদেশ থেকে পাঠানো এতিমদের সহায়তা করার উদ্দেশ্য বিদেশ থেকে পাঠানো ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা ক্ষমতার অপব্যহার করে দুর্নীতির মাধ্যমে আত্মসাৎ করার অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই দুদক এই মামলা করেন। তদন্ত শেষে ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট খালেদা জিয়া, তাঁর বড় ছেলে তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন দুদকের উপপরিচালক হারুন অর রশীদ। ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ ২০১৪ সালের ১৯ মার্চ আদালত খালেদা জিয়াসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯, ১০৯ ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ গঠন করেন।

LEAVE A REPLY