কড়া রোদ থেকে হতে পারে চোখের সমস্যা

কড়া রোদ থেকে হতে পারে চোখের সমস্যা

SHARE
Eye problem from sun

চোখ আমাদের শরীরের অন্যতম একটি প্রয়োজনীয় অংশ। দীর্ঘদিন চোখ কড়া সূর্যের আলোর সংস্পর্শে থাকলে চোখের মনির ভেতরের রঙিন অংশে ‘ফ্রেকলস’ বা ছোট ছোপ পড়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। আর তাই কড়া রোদ থেকে হতে পারে চোখের সমস্যা

গবেষণায় দেখা যায়, চোখের মনিতে কালো ছোপ দেখা দেওয়া সূর্যের আলোজনীত চোখের রোগ, যেমন- ছানি পড়া, ‘ম্যাকুলার ডিজেনারেশন’ বিবর্ণ দাগ পড়া ইত্যাদি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আবার বয়সের বৃদ্ধির সঙ্গেও এই ছোপ পড়ার সম্পর্কে রয়েছে। যাদের জীবনের বেশিরভাগ সময় কেটেছে রোদে ঘুরে কিংবা মারাত্বকভাবে রোদের পুড়ে তাদের ক্ষেত্রেও এটা হওয়ার সম্ভাবনা অনেকে বেশি।

অস্ট্রিয়ার ‘মেডিকাল ইউনিভার্সিটি অফ গ্রাজ’য়ের অপথালমোলজিস্ট ক্রিস্টোফ সোয়াব বলেন, “চোখের বিভিন্ন রোগের পেছনে সূর্যের আলো নির্দিষ্ট অবদান আমাদের জানা নেই। তবে বর্তমানে, দীর্ঘদিন ধরে চোখে অতিরিক্ত সূর্যের আলো পড়ছে তা বোঝার একটি জৈবিক মানদণ্ড আছে আমাদের, যা হল এই ‘ফ্রেকলস’।”

তিনি আরও বলেন, “তবে যাদের চোখের মনি গাঢ় রংয়ের তাদের চোখে এই ছোপ পড়ার আশঙ্কা কম। আর যারা সূর্যের আলো থেকে চোখ বাঁচানোর জন্য সানস্ক্রিন ও রোদচশমা ব্যবহার করেছেন তারা এই সমস্যা থেকে দূরে থাকতে পারবেন।”

‘ইনভেস্টিগেটিভ অপথালমোলজি অ্যান্ড ভিজুয়াল সাইন্স’ শীর্ষক জার্নালে প্রকাশিত এই গবেষণায় অস্ট্রিয়ার স্টাইরিয়া অঞ্চলের সুইমিং পুলগুলো থেকে ৬শ’ জন সাঁতারুর চোখ পর্যবেক্ষণ করা হয়। তাদের চোখে ছোপ পড়েছে কি না তা দেখা হয়। আর এখন পর্যন্ত কতটা সূর্যের আলোর সংস্পর্শে এসেছেন এবং তা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হয় কিনা, তা জানার জন্য প্রশ্ন-উত্তর পর্বের আয়োজন করা হয়।

গবেষকরা আরও দেখেন, সবচাইতে বেশি ছোপ পড়তে দেখা যায় নাক থেকে সবচাইতে দূরে দুই চোখের মনির সব বাইরের প্রান্তে।

“এর সম্ভাব্য কারণ হতে পারে নাক ও চোখের ভ্রু চোখের মনির উপরের এবং ভেতরের দিকটাকে রোদ থেকে রক্ষা করে। ফলে এই অংশগুলোতে ছোপ পড়ার সম্ভাবনা কম থাকে।”- ব্যাখ্যা করেন সোয়াব।