কেন খাবেন ভেজানো বাদাম

কেন খাবেন ভেজানো বাদাম

SHARE
Nut-health

শরীর সুস্থ ও স্বাস্থ্যকর রাখতে চিকিৎসকেরা নিয়মিত বাদাম খাওয়ার পরামর্শ দেন। কারণ, বাদামে রয়েছে স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী উপাদান। তবে, অনেকেই বাদাম কাঁচা কিংবা পানিতে ভিজিয়ে, দু’ভাবেই খেয়ে থাকেন। কিন্তু বাদাম কাঁচার থেকে পানিতে ভেজানো অবস্থায় খেলে তা শরীরের জন্য বেশি উপকারী এমনই তথ্য দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। আজ আমরা জানবো কেন খাবেন ভেজানো বাদাম

কাঠবাদামে ভিটামিন ই, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম থাকায় শরীরের হাড়গুলোকে শক্ত ও মজবুত করে। শরীরের কোলেস্টেরল কমাতেও সাহায্য করে কাঠবাদাম। এতে চর্বির পরিমাণ কম। এতে কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন আছে। হৃদ্‌রোগ যাঁদের আছে, তাঁরা এ থেকে উপকার পাবেন।

কাজুবাদামে ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেশিয়াম ও জিংক আছে। কাজুবাদাম শরীরের কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে।

পেস্তাবাদামে প্রচুর পরিমাণে চর্বি আছে, এটি শক্তি জোগায়। এতে পটাশিয়াম, আয়রন, কপার, জিংক ইত্যাদি আছে। এ ছাড়া বেশি পরিমাণে প্রোটিন রয়েছে।

চিনাবাদামে প্রোটিন বেশি থাকায় এটি হৃদ্‌রোগীদের জন্য উপকারী। শরীরে রক্ত চলাচল সাহায্য করে।

আখরোটে ওমেগা-৩ ও ৬ বিদ্যমান আছে। কিন্তু কোলেস্টেরল নেই।

আসুন জেনে নিই ভেজানোর বাদামের উপকারিতাগুলো-

১) হজমশক্তি বাড়ায়।

২) ওজন কমায়।

৩) হৃদপিন্ড সুস্থ রাখে।

৪) প্রচুর পরিমানে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস আছে।

৫) ক্যানসার প্রতিরোধক উপাদান হিসেবে কাজ করে।

৬) টিউমার কোষ তৈরি প্রতিরোধ করে।

৭) রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বজায় রাখে।

বদাম এসব উপকারী গুণ তাই ভিজিয়ে খেলে শরীর করবে সুস্বাস্থের অধিকারী, আর রোগ থেকে রাখবে দূরে। বাদাম হচ্ছে শক্তি, প্রোটিন ও ভালো চর্বির উৎস। তাই খাদ্যতালিকায় নিয়মিত বাদাম রাখা দরকার। অনেক ধরনের বাদাম পাওয়া যায়। এর মধ্যে চিনাবাদাম, আখরোট, কাজু ও পেস্তাবাদাম খেতে পারেন। সুস্থ থাকতে খাবারের সঙ্গে নানাভাবে বাদাম যুক্ত করতে পারেন। পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ বাদাম তাই ভেজে বা কাঁচা খাওয়া পাশাপাশি ভিজিয়েও নিয়মিত খান এখন থেকে।