Home লাইফস্টাইল কান ভালভাবে পরিষ্কারের সহজ নিয়ম

কান ভালভাবে পরিষ্কারের সহজ নিয়ম

কান ভালভাবে পরিষ্কারের সহজ নিয়ম বাংলার সময়

ওয়্যাক্স শরীর নিজে থেকে তৈরি করে কানের পর্দা সুরক্ষিত রাখার জন্য।কানের নিজস্ব ময়লা কিন্তু কানের শক্র নয়।ইয়ারবাড,কাঠি দিয়ে কানের ময়লা পরিষ্কার করতে গিয়ে সেই ময়লাকে ঠেলে নিজেরাই আরো ভিতরে পাঠিয়ে দিই। আর সমস্যার শুরু কিন্তু সেখান থেকেই। তাই কানের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চাইলে কোনো কিছু না করাই ভালো।কানের ওয়াক্স সাধারণত তৈলাক্ত প্রকৃতির হয়। প্রকৃতিগত ভাবে কর্ণকুহর আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে এই ওয়্যাক্স। নিয়মিত ইয়ারবাড ব্যবহার করলে কানের ভিতরের চামড়া শুষ্ক হয়ে পড়ে। নরম চটচটে ওয়্যাক্স শুকিয়ে যায়। কাঠির খোঁচা লেগে তা কানের আরো গভীরে ঢুকে যেতে পারে। সেখান থেকে সংক্রমণ হওয়া অস্বাভাবিক নয়। তা ছাড়া অসাবধানে কানের পর্দায় খোঁচা লেগে তা ছিঁড়ে যেতে পারে। কানে কম শোনা পাকাপাকিভাবে শ্রবণশক্তি নষ্ট হওয়ার আশঙ্কাও থেকে যায়।দেশলাই ধূপ দাঁত খোচাঁনোর কাঠি কিংবা সেফটি পিন দিয়ে কান খোঁচানো উচিত না। এখন পর্যন্ত এমন কোনো যন্ত্র আবিষ্কার হয়নি যার সাহায্যে কানের মধ্যে জমা ময়লা পিছন থেকে টেনে বের করা যায়। কান কিন্তু নিজেই নিজেকে পরিষ্কার রাখতে পারে। কর্ণকুহরের ভিতর চোয়ালের সাথে কানের যে সংযোগস্থল খাবার খাওয়ার সময়ে সেখানে একটা দেয়াল তৈরি হয়। যার ফলে ময়লা বা ওয়্যাক্স কানের আরো গভীরে প্রবেশ করতে পারে না। চিবোনোর সময়ে মুখের পেশি নড়াচড়া করলে নিজে থেকেই কানের বাইরে চলে আসে।কানের বাইরের অংশ সুতির ভিজে কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করা যেতে পারে।ওয়েট ওয়াইপ্‌সও ব্যবহার করেও কান পরিষ্কার করা যেতে পারে।