এলাচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

এলাচির স্বাস্থ্য উপকারিতা

SHARE
health benefit of elachi

এলাচি একটি সুগন্ধিযুক্ত মসলা। এলাচকে বলা হয় মসলার রাণী। এটি শুধু রান্নায় মিষ্টি গন্ধই দেয় না, প্রাকৃতিক মাউথ ফ্রেশ্নার হিসেবেও এটি ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। কিন্তু এলাচির অগণিত স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা অনেকেই জানেন না। এলাচের স্বাস্থ্য উপকারিতার বিষয়েই জানবো আজঃ

পরিপাকের উন্নতি ঘটায়ঃ এলাচির ব্যাপক বায়ুনাশক গুন আছে। এলাচ ও আদা অনেকটাই সমগোত্রীয়। আদার মতোই পেটের নানা সমস্যা দূরীকরণে এবং হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এলাচ অনেক কার্যকরী। বুক জ্বালাপোড়া, বমি বমি ভাব, পেট ফাঁপা, এসিডিটির হাত থেকে মুক্তি পেটে এলাচ মুখে দিন।

বিষাক্ত পদার্থ থেকে দেহকে বাঁচায়ঃ বিভিন্ন বিষাক্ত পদার্থ দূরীকরণে এলাচের জুড়ি নেই। এলাচির কিউরেটিক উপাদান দেহের টক্সিক পরিষ্কারে সাহায্য করে।

রক্তের তরলীকরণঃ অনেকেই রক্তনালীতে রক্ত জমাট বাঁধার ভয়ে থাকেন। এলাচের রক্ত পাতলা করার এই দারুণ গুনটি এ সমস্যা থেকে মুক্তি দেবে। প্রতিদিন নিয়ম করে এলাচ খেলে রক্তের ঘনত্ব সঠিক থাকে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ভূমিকা রাখেঃ এলাচের কিউরেটিক উপাদান উচ্চ রক্তচাপ কমিয়ে আনতে সাহায্য করে। দেহের বাড়তি ফ্লুয়িড কমিয়ে এলাচ উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সক্ষম।

নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করেঃ যদি আপনার নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ থাকে তাহলে এলাচি ব্যবহার করুন। এর শক্তিশালী গন্ধ নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ দূর করতে পারে। এলাচি বীজের তেল ও নিঃশ্বাসের দুর্গন্ধ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে এলাচি ভূমিকা রাখে।

ক্ষুধার উন্নতি ঘটায়ঃ এলাচ উষ্ণ পরিপাক টনিক হিসেবে কাজ করে বলে বদহজম, পেটফাঁপা এবং এসিডিটির সমস্যা মোকাবেলায় সাহায্য করে ক্ষুধামন্দা দূর করতে পারে। এছাড়াও এটি পরিপাক রসের নিঃসরণের উন্নতি ঘটায়।

কিডনির স্বাস্থ্যের উন্নতিতে সাহায্য করেঃ এলাচ কিডনির জন্য ভালো, কারণ এটি মূত্র ত্যাগকে উদ্দীপিত করে এবং ব্লাড প্রেশার কমতে সাহায্য করে। এছাড়াও কিডনিতে জমা হওয়া ক্যালসিয়াম ও ইউরিয়া দূর করতেও সাহায্য করে। নিয়মিত এলাচ গ্রহণ করলে বিভিন্ন ধরণের কিডনির সমস্যা, মূত্র থলির সমস্যা, কিডনি পাথর, নেফ্রাইটিস, মূত্র ত্যাগের সময় জ্বালাপোড়া বা ব্যথা করা ও ঘন ঘন মূত্র ত্যাগের সমস্যা নিরাময়ে কাজ করে। এটি প্রায়ই মূত্র নালীর সংক্রমণের চিকিৎসায় ও ব্যবহার করা হয়।

এছাড়াও এলাচি পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামে পরিপূর্ণ থাকে। পটাসিয়াম রক্ত, দেহের তরল ও কোষের প্রধান উপাদান যা হৃদস্পন্দন নিয়মিত রাখতে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এলাচি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ বলে অ্যানেমিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে সাহায্য করে, অ্যাজমা বা ব্রংকাইটিসের মত শ্বসনতন্ত্রের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে, ক্যান্সার বিশেষ করে কোলন ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে,  হেঁচকি দূর করতে সাহায্য করে।