এবার বিপর্যয়ে ‘গ্রেট গ্র্যান্ড মাস্তি’

এবার বিপর্যয়ে ‘গ্রেট গ্র্যান্ড মাস্তি’

SHARE
Grate grand masti

ঘরের কম্পিউটারগুলোতে ইতোমধ্যে পৌঁছে গেছে বলিউডের অ্যাডাল্ট কমেডি মুভি ‘গ্রেট গ্র্যান্ড মাস্তি’। মুক্তির আগেই ঘরে ঘরে কম্পিউটারগুলোতে পৌঁছে গেছে ছবিটি। অনলাইনে পাইরেটেড সংস্করণ চলে আসায় মারাত্মক লোকসানের মুখে পড়তে যাচ্ছে ছবিটি।

মুক্তির প্রায় তিন সপ্তাহ আগেই অনলাইনে ফাঁস হয়ে গেছে ছবিটির পাইরেটেড সংস্করণ। ‘গ্রেট গ্র্যান্ড মাস্তি’ ছবিটি ২২ জুলাই মুক্তির কথা থাকলেও অনলাইনে ফাঁস হওয়ায় ১৫ জুলাই মুক্তি দেওয়া হয় ছবিটি। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ছবিটির পরিচালক ইন্দ্র কুমার, অভিনেতা বিবেক ওবেরয়, রিতেস দেশমুখ, আফতাব শিবদাসানি ও অভিনেত্রী উর্বশী রাউটেলা।

এক সংবাদ সম্মেলনে বিপর্যস্ত ইন্দ্র কুমার বলেন, ‘বিরাট একটা ক্ষতি হয়ে গেল। আনুষ্ঠানিক মুক্তির ১৭ দিন আগে অনলাইনে সেটা ফাঁস হওয়ার ঘটনা এবারই প্রথম ঘটল। আমাদের সব শেষ।’

অভিনেতা বিবেক দাবি করেন, ছবি ফাঁসের কারণে অন্তত ১০০ কোটি টাকার লোকসান গুনতে হবে বিনিয়োগকারীদের।

আর নির্মাতারা জানিয়েছেন, শুক্রবার মুক্তির দিনে ছবির আয় ছিল মাত্র দুই কোটি। ছবি ফাঁসের ঘটনায় সাইবার অপরাধ সেলে অভিযোগ করেছেন নির্মাতারা।

‘গ্রেট গ্র্যান্ড মাস্তি’ ছবির প্রযোজক সংস্থা বালাজি মোশন পিকচারের আইনজীবী হিতেস জৈন বলেন, ‘ছবিটির অবৈধ ডিভিডি বিক্রির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সরকার ও পুলিশ আমাদের যথেষ্ট সাহায্য করছে। এতে বাহ্যিক পাইরেসি ঠেকানো গেলেও অনলাইন ডাউনলোড নিয়ে আমাদের কিছুই করার নেই। অপকর্মটি যারা করেছে, তাদের কাছ থেকে একটা ক্ষতিপূরণ আদায় করা যাবে বলে আশা করছি।’

ছবির অন্যতম অভিনেতা রিতেস। তিনি ধারণা করেছেন, এটা কোনো ভক্তের কাজ। আর অভিনেত্রী উর্বশী এ ঘটনাকে খুনের সঙ্গে তুলনা করে বলেছেন, ‘এর আগে “উড়তা পাঞ্জাব” ছবিটা ফাঁস হওয়ায় আমরা খুব কষ্ট পেয়েছিলাম। ব্যাপারটা হতাশাজনক, রীতিমতো খুনের মতো ঘটনা।’

ছবিটি অনলাইনে পাওয়া গেলেও বসে নেই ছবির নির্মাতারা। প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা। অভিনেতা আফতাব বলেন, ‘ছবির আনুষ্ঠানিক মুক্তির আগে এ নিয়ে আমরা কোনো কথা বলিনি। তাতে আরও ক্ষতি হতো।’