এবার চুলের সঙ্গী হবে গোলাপজল

এবার চুলের সঙ্গী হবে গোলাপজল

SHARE
rosewater

সকলের কাছে এক অতি পরিচিত প্রসাধন সামগ্রী গোলাপজল। গোলাপজল যেমন ত্বকের বিভিন্ন রূপচর্চায় ভূমিকা পালন করে তেমনি চুলের যত্নেও গোলাপজল সিদ্ধহস্ত। চুলপড়া রোধে, খুশকি দূর করতে, চুল নরম ও মসৃণ করতে গোলাপজল খুবই উপকারি একটি সামগ্রী।

প্রতিদিন আপনার চুলের সুরক্ষায় গোলাপজলের কয়েকটি উপকারি দিক তুলে ধরা হলঃ

১। গোলাপজল আর এলোভেরার রসের মিশ্রণ সমান পরিমানে নিয়ে তা মাথার তালু ও চুলের গোঁড়ায় এক ঘণ্টা মাখিয়ে রাখলে চুলের রুক্ষতা দূর হয় এবং চুলে সজীবতা ফিরে আসে।

২। চুলে কন্ডিশনার লাগাতে চান? বা বাজারের উৎকৃষ্ট কন্ডিশনার কিনতে ঝামেলায় পরছেন? তাহলে আধা কাপ গোলাপজলের সাথে ২ চা চামচ মধু মিশিয়ে নিন। চুলে ৪০ মিনিট মেখে রেখে দিন। দেখবেন আপনার চুল সিল্কি হয়ে গেছে এবং ঐ উপাদানদ্বয় কন্ডিশনারের মত কাজ করেছে।

৩। চুল পড়ে যাচ্ছে- এই সমস্যা?? তাহলে আর দেরি না করে এখনই গ্রিন টিয়ের সাথে সমান পরিমানে গোলাপজল মিশিয়ে  প্যাক তৈরি করে চুলে মাখিয়ে নিন। দেখবেন চুল পরা ম্যাজিকের মতো কমে গেছে এবং নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।

৪। এক চা চামচ লবনের সাথে কয়েক ফোঁটা গোলাপজল মিশিয়ে মাথায় দিলে খুশকি পরা অনেকখানি কমে যায়।

৫। কয়েক ফোঁটা গোলাপজলের সাথে এক চা চামুচ গ্লিসারিন মিশিয়ে মাথায় ১০ মিনিট মাখিয়ে রাখুন। তারপর চুল ধুইয়ে শ্যাম্পু করে নিন। দেখবেন আপানার চুল আগের চেয়ে তুলনামূলক অনেক মসৃণ ও নরম হয়েছে।

তাছাড়া গোলাপজলে আছে পর্যাপ্ত ভিটামিন ও গোলাপের নির্যাস। ভিটামিন চুলকে পুষ্টি দান করে ও চুলের গোঁড়া মজবুত করে। আর গোলাপের নির্যাস চুল বড় করে এবং চুলে লাবণ্যতা ফিরিয়ে আনে।

সর্বোপরি চুল নারীর অহংকার। খোঁপা বাঁধা, বেণী করা প্রভৃতি হরেক রকম চুলের আর্ট আছে। আর এই আর্ট তখনি সম্ভব যখন চুল পরিমিত পুষ্টি উপাদান পায়। আর সেই রকমই চুলের পুষ্টি উপাদানের একটি উৎস হচ্ছে গোলাপজল। সুতরাং চুলকে ঘন, কালো ও আরও স্বাস্থ্যবান করে তুলতে গোলাপজলের কোনো জুড়ি নাই।