একটানা বসে থাকলেই বিপদ!

একটানা বসে থাকলেই বিপদ!

SHARE
sitting_for long time

কথায় আছে, ‘শরীরের নাম মহাশয়; যা সহায় তাই ই সহে’। আপনি যদি একটানা ৫ ঘণ্টা বা তার অধিক সময় বেশি বসে কাজ করেন তাহলে কি হবে বলতে পারেন? একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, এভাবে একটানা বসে কাজ করলে শিগগিরই হার্ট অ্যাটাকে আপনার মৃত্যুর ঝুঁকি রয়েছে! তাই এখন থেকেই সচেতন হোন।

গবেষণায় দেখা গেছে যে, দিনের বেশিটা সময় ধরে বসে থাকলে জটিল হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি প্রায় ০.২ শতাংশ বেড়ে যায়। শুধু তাই নয়, বসে থাকার সময় প্রতিঘণ্টায় আমাদের পেটে চর্বি জমতে থাকে। এতে পেট ও কোমর মোটা হয়ে যায় এবং ওজন বেড়ে যায়। এভাবে শরীরের ওজন যত বাড়বে, ততই মরণ রোগ যেমন: ডায়াবেটিস, রক্তচাপ বা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়বে।

কেউ যদি একাধারে ৫ ঘণ্টা বা তার বেশি সময় বসে থাকেন, তাহলে প্রতিঘণ্টায় তার শরীরে এইচডিএল বা বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধি পায় এবং সেই সঙ্গে ভালো কোলেস্টেরল বা এলডিএলের মাত্রা কমে যায়, যা শরীরের জন্য মোটেই ভালো নয়।

ব্রিটেনের ইউনিভার্সিটি অব ওয়ারউইকের প্রফেসর উইলিয়াম টিগবে বলেন, দীর্ঘক্ষণ সেকেন্ডারি পসচার মানে বসে থাকলে শরীরে ট্রাইগ্লিসারাইডের মাত্রা বা চর্বির মাত্রা বেঁড়ে যায়। সেই সঙ্গে ভালো কোলেস্টরলের মাত্রা কমে যায়। ফলে হৃদরোগসহ আরও অনেক জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

তাহলে যাদের বসে কাজ করতে হবেই তারা কী করবেন? ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব ওবেসিটিতে প্রকাশিত একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, যারা প্রতিনিয়ত ৫ ঘণ্টার বেশি সময় বসে কাজ করেন, তারা যদি প্রতিদিন ১৫,০০০ পদক্ষেপ বা মানে ৭-৮ মাইল হাঁটেন, তাহলে এই সব রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমে যাবে।

তাছাড়া শরীরকে কোনোভাবেই বেশিক্ষণ বসিয়ে রাখা যাবে না। সবসময় একটা গতিশীলতার মধ্যে থাকতে হবে। আর যতটা সম্ভব খাওয়া অনুযায়ী পরিশ্রম করা যাতে খাবার যথাযথভাবে হজম হওয়ার সময় ও সুযোগ পায়। তবে কেউ যদি জোর করে শরীরের উপর এমন অনাকাঙ্ক্ষিত দায় চাপিয়ে দেন তাহলে শরীরও আপনার উপর বিরূপ প্রভাব ফেলবে। তাই এখনই সচেতন হন এবং সুস্বাস্থ্যের অধিকারি হোন।