এই শীতে চুলকে খুশকিমুক্ত রাখার উপায়

এই শীতে চুলকে খুশকিমুক্ত রাখার উপায়

SHARE
Dandraff free hair

শীতে বাতাসের আর্দ্রতা কম থাকার ফলে খুশকি বেশি হয়। খুশকির প্রধান কারণগুলো হল মাথার স্ক্যাল্পে ফাংগাল ইনফেকশন, অপরিষ্কার থাকা, শ্যাম্পু লাগিয়ে ভালো করে না ধোয়া, তৈলাক্ত স্কাল্পে ধুলোবালি জমে যাওয়া ইত্যাদি। খুশকির সমস্যাটি অস্বস্তিকর হলেও একটু সচেতন হলেই সম্ভব খুশকিমুক্ত থাকা।

১। সমপরিমাণ শুকনো মেথি ও আমলকি সারা রাত ভিজিয়ে রেখে পরের দিন পেস্ট করে মাথার ত্বকে ১ ঘণ্টা লাগিয়ে রাখুন। এরপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

২। ২ কাপ পানিতে ১ কাপ অ্যালোভেরা জেল ফুটিয়ে নিন। ঠান্ডা হয়ে গেলে মাথার ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। এরপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

৩। খুশকি দূর করতে প্রথমে অর্ধেক পাকা কলা চটকে নিন। এর সঙ্গে ১ টেবিল চামচ মধু ও এক টেবিল চামচ পাতি লেবুর রস মেশান। এবার এটি চুলের গোড়া ও মাথার ত্বকে লাগিয়ে ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৪। ৪-৫টি লেবুর খোসা ছাড়িয়ে নিন। খোসাগুলো ৪-৫ কাপ পানিতে ২০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। এরপর ঠাণ্ডা হয়ে গেলে পেস্ট করে মাথার ত্বকে ভালোভাবে ৩০ মিনিট লাগিয়ে রেখে বেশি পরিমাণ পানি ব্যবহার করে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি খুশকি দূর করতে বিশেষ সাহায্য করবে।

৫। শ্যাম্পু করার ৩০ মিনিট আগে দুই টেবিল চামচ ভিনিগার নিয়ে মাথার স্কাল্পে হালকা হাতে ম্যাসাজ করুন। মাথার স্কাল্পে কোনভাবেই ময়লা জমতে দেয়া যাবে না।

৬। খুশকি দূর করতে শসার রস এবং আদার রস সমপরিমাণে মিশিয়ে মাথায় মাখুন। মাথায় গরম পানি ব্যবহার করবেন না। চুল ভেজা অবস্থায় বাইরে বোরোবেন না।

৭। সব সময় পরিষ্কার চিরুনি ব্যবহার করুন। অন্যের চিরুনি কখনোই ব্যবহার করবেন না।

৮। শ্যাম্পু পরিমাণে কম ব্যবহার করে, বেশি পরিমাণ পানি ব্যবহার করুন।