উন্নতিতে বাধা বদ অভ্যাস

উন্নতিতে বাধা বদ অভ্যাস

SHARE
Success-habits

ব্যবসায় হোক আর চাকরিই হোক কোনো কিছু করেই উন্নতি করতে পারবেন না যদি কিছু বদ অভ্যাস থাকে। উন্নতি করতে হলে এই বদ অভ্যাসগুলির বাধা আগে টপকাতে হবে আপনাকে। আজ জানবো উন্নতিতে বাধা বদ অভ্যাস এর কথা-

শরীরচর্চায় অনীহা: আমাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন যারা কিনা ব্যায়ামের প্রতি বেশ উদাসীন। যার অভাবে দৈহিক ও মানসিক শক্তি হ্রাস পেতে থাকে। কারণ নিয়মিত ব্যায়াম আপনাকে সার্বিকভাবে সুস্থতা প্রদান করতে থাকে। কাজের চাপে শরীরচর্চা হয়ে ওঠে না অনেকের। এটা মোটেও যৌক্তিক অনুযোগ নয়। এ কাজে নিয়মিত হলে অভ্যাসে পরিণত হবে। আর অভ্যাস কখনো বাড়তি ঝামেলা বলে মনে হয় না।

বিশ্রামের অভাব: আপনি পরিশ্রমী। এটা ভালো। কিন্তু কর্মক্ষেত্রে নিয়মিত থাকতে দেহ-মনের বিশ্রাম জরুরি। সুস্থ থাকলেই পরিশ্রম করতে পারবেন। নয়তো বিছানায় পড়লে কাজ এগোবে না। কোনো প্রকারের ব্যস্ততার দোহাই দিয়ে বিশ্রামের প্রয়োজনীয়তা এড়ানোর উপায় নেই। তাই আরো বেশি শ্রম দিতে নিয়মিত বিশ্রাম নিতে হবে।

ব্যক্তিগত অর্থব্যবস্থায় ঝামেলা: ব্যবসার আয়তন বৃদ্ধিতে যদি অর্থের জোগান নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন, তবে কোথাও সমস্যা রয়েছে। আপনার অর্থব্যবস্থায় কোথাও গলদ আছে। আবার ব্যক্তিগত কাজে অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় ব্যবসায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এগোতে অর্থের অভাব পড়ে যায়। তাই অর্থের লেনদেনে সুষ্ঠু নীতিমালার বিকল্প নেই। অপ্রয়োজনে এবং হিসাবের বাইরে অর্থ খরচ বন্ধ করতে হবে।

সম্পর্কসংশ্লিষ্ট সমস্যা: সম্পর্কবিষয়ক জটিলতা যদি পেশাগত জীবনে ঢুকে যায়, তবে বড় ধরনের সমস্যার মুখোমুখি হবেন। এ ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত জীবন ও কর্মক্ষেত্র দুটিই গোল্লায় যাবে। তাই পারস্পরিক বোঝাপড়ার মাধ্যমে সমস্যা মিটিয়ে ফেলুন। আসলে সম্পর্ক যত গভীরে যাবে ব্যবসায় এর প্রভাব তত ব্যাপক হবে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

সীমাবদ্ধতার পেরেশানি: সবারই নানা সীমাবদ্ধতা রয়েছে। এগুলোর সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ। কিন্তু জয়ের ইচ্ছায় ক্রমাগত যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়া সত্যি বেদনাদায়ক। এ স্বভাবের জন্য প্রায়ই হাঁপিয়ে উঠবেন। আবার সীমাবদ্ধতাগুলো পাশে ফেলে দেওয়াটাই উত্তম কৌশল। নয়তো গোটা চাপ ঘাড়ে চেপে বসবে। খুব সহজ কাজ দারুণ জটিল হয়ে উঠবে। তাই বদভ্যাসের পরিবর্তনে নিজে বদলে যাবেন, প্রসারিত হবে ব্যবসা।

 

LEAVE A REPLY