ঈদের আগে ত্বক ও চুলের যত্ন

ঈদের আগে ত্বক ও চুলের যত্ন

SHARE
Skin & hair care for eid

ঈদের দিন যতই সাজগোজ করুন না কেন, ত্বক আর চুল যদি সুন্দর না থাকে তবে সাজ কখনই ফুটবে না। এ জন্য অবশ্য ঈদের দু-একদিন আগে তড়িঘড়ি করে রূপচর্চা করতে দেখা যায় অনেককে। কিন্তু এভাবে দু-একদিন আগে রূপচর্চা করলে অনেক ক্ষেত্রেই ত্বক ও চুল সুন্দর করা সম্ভব হয় না। ঈদ উপলক্ষে এখন থেকে প্রতিদিন একটু একটু করে ত্বক আর চুলের যত্ন নিন। এতে ঈদের দিন আপনার ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল আর চুল হয়ে উঠবে ঝলমলে। আজ আমরা জেনে নিব ঈদের আগে ত্বক ও চুলের যত্ন সম্পর্কে-

অপর্যাপ্ত পানি পান আর অতিরিক্ত ভাজাপোড়া খাবার খাওয়ার কারণে রোজার মাসে ত্বক ও চুল রুক্ষ ও নিষ্প্রাণ হয়ে পড়ে। তাই রোজার শুরু থেকেই ত্বক ও চুলের ঘরোয়া যত্ন নেওয়া উচিত। এতে ঈদের দিন মেকআপ ত্বকে সুন্দরভাবে মিশবে এবং মেকআপের ক্ষতিকর প্রভাবও ত্বকে কম পড়বে।

ত্বকের যত্ন

শুষ্ক ত্বকের অধিকারীরা ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে দুধের সরের সঙ্গে এক চিমটি হলুদ ও কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন মিশিয়ে ত্বকে মালিশ করুন ৫ মিনিট। এর পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মিশ্রণটি টানা সাত দিন ব্যবহারে ত্বকের শুষ্কভাব অনেকটাই কমে আসবে।

তৈলাক্ত ও মিশ্র ত্বকের জন্য মুলতানি মাটি বেশ উপকারী। গোলাপজলের সঙ্গে মুলতানি মাটি ও এক চামচ মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। তৈলাক্ত ত্বকে ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডস বেশি হয়। সপ্তাহে দুবার স্ক্র্যাবিং করলে ব্ল্যাক হেডস ও হোয়াইট হেডসের প্রকোপ কম থাকবে। এ জন্য চিনি ও মধু মিশিয়ে স্ক্র্যাব তৈরি করে হালকা ভেজা ত্বকে হাত ঘুরিয়ে মালিশ করতে হবে।

স্বাভাবিক ত্বকের অধিকারীরা এক টেবিল চামচ চন্দন বাটা, এক চা-চামচ টমেটোর রস, এক চা-চামচ শসার রস একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে রেখে ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

সারা দিন রোজা রাখার ফলে ত্বক পানিশূন্য হয়ে পড়ে ও ময়েশ্চরাইজার হারায়। ত্বকের ময়েশ্চারাইজার ধরে রাখতে মধু ও ওটমিল মিশিয়ে ঘন পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে রেখে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

এক গ্লাস পানিতে দুই টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে ফ্রিজে রাখুন। মুখ ধোয়ার পর এই ঠান্ডা লেবু-পানিতে তুলা ভিজিয়ে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। এটা রোদে পোড়া ভাব কমিয়ে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াবে।

চুলের যত্ন

সপ্তাহে অন্তত দুদিন চুলে তেল লাগিয়ে ১ ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু করুন। সম্ভব হলে তেলটা কুসুম গরম করে নিন।

চুল ধোয়ার পর পানিতে কয়েক ফোঁটা ভিনেগার মিশিয়ে নিন। এর পর সেই ভিনেগার মিশ্রিত পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। ভিনেগার চুলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ও রুক্ষতা দূর করতে সাহায্য করবে এবং চুল কিèনিংয়ের কাজও করবে বলে জানান শাহীনা আফরিন।

হাত ও পায়ের যত্ন

লেবুর রসের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে হাতের কনুই ও পায়ের হাঁটুতে ঘষলে কালচে দাগ দূর হবে। প্রতিদিন বাইরে থেকে ফেরার পর হালকা গরম পানিতে সামান্য শ্যাম্পু ও লবণ মিশিয়ে পা দুটি ভিজিয়ে রাখুন ১০-১৫ মিনিট। এর পর পায়ে স্ক্র্যাবার ম্যাসাজ করে পা ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

এছাড়া ঈদের অন্তত ১৫ দিন আগে চুল কাটা ভালো। সময় না পেলে কমপক্ষে এক সপ্তাহ আগে কাটুন। কারণ নতুন হেয়ার কাট চুলে সেট হতে এক সপ্তাহ সময় লাগে। ঈদের আগে দিন পার্লারে গিয়ে চুলের গ্লো-সেটিং করাতে পারেন।

ঈদের দু-একদিন আগে পার্লারে ফেসিয়াল, পেডিকিউর, মেনিকিউর করিয়ে নিতে পারেন। চাইলে ঘরেও করতে পারেন। ভ্র প্ল্যাক ঈদের দু-তিদিন আগে করাই ভালো। এতে ভ্র র নতুন শেপ মুখের সঙ্গে সেট হয়ে যাবে।