দারাজের মালিকানা কিনে নিয়েছে আলিবাবা

দারাজের মালিকানা কিনে নিয়েছে আলিবাবা

SHARE
Aliabah bought Darraj's ownership

বাংলাদেশ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মিয়ানমার ও নেপালে ই-কমার্স কোম্পানি দারাজের মালিকানা কিনে নিয়েছে আলিবাবা। এই চুক্তির ফলে দারাজ এখন আলীবাবার অধীনে পরিচালিত হবে। আজ মঙ্গলবার দারাজ বাংলাদেশের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশে শুধু দারাজ নয়, গত সপ্তাহে দেশের সবচেয়ে বড় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা দাতা প্রতিষ্ঠান বিকাশের ২০ শতাংশ শেয়ার কিনেছে চীনের এ জায়ান্ট কােম্পানি। সেখানে বিকাশের সঙ্গে কৌশলগত অংশীদার হিসেবে কাজ করবে আলিবাবা।

২০১২ সালে কার্যক্রম শুরু করে দারাজ। বর্তমানে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, মিয়ানমার, শ্রীলঙ্কা ও নেপালে দারাজ ব্যবসা কার্যক্রম চালাচ্ছে। দারাজ হচ্ছে এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারনেট গ্রুপের (এপিএজিআইসি) একটি অনলাইন শপিং প্রতিষ্ঠান। এপিএজিআইসি হচ্ছে জার্মানিভিত্তিক রকেট ইন্টারনেট ও অরেডোর একটি যৌথ উদ্যোগ।

দারাজের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আলীবাবা ইকোসিস্টেমের অন্তর্ভুক্ত হলেও দারাজের ব্র্যান্ড নামে কোনো পরিবর্তন আসবে না।

দারাজের সহপ্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিয়ার্কে মিক্কেলসেন বলেন, এ চুক্তির ফলে আলীবাবা পরিবারে জায়গা করে নিল দারাজ।

দারাজের আরেক সহপ্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাথন ডোয়ার বলেন, ‘আলীবাবার সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে আমরা এ অঞ্চলের উদ্যোক্তাদের ক্ষমতায়ন করার জন্য প্রস্তুত। প্রতিশ্রুতিমোতাবেক গ্রাহকদের কাছে সেরা পণ্যগুলো খুব সহজেই পৌঁছে দিতে পারব।’

বাংলাদেশে ফ্ল্যাট-বাড়ি ও জায়গা-জমি নিয়ে লামুডি, গাড়িতে কারমুডি, খাবার-দাবারে ফুডপান্ডা, নিত্যপণ্যের মার্কেটপ্লেস (বিক্রির মাধ্যম) কেইমু, দারাজ ডটকম (সরাসরি বিক্রি) ও জব মার্কেটপ্লেস এভারজবস ও  অনলাইনে হোটেল বুকিংয়ের মার্কেটপ্লেস জোভাগোসহ  সাতটি ভেঞ্চার চালু করেছিল রকেট ইন্টারনেট।

এরমধ্যে কেইমু ডটকম ডটবিডি টিকতে না পেরে ২০১৭  সালে একীভূত হয়ে যায় দারাজের সঙ্গে। জোভাগো বন্ধ হয়ে যায় একই বছরের ডিসেম্বরে। এভারজবস ধুঁকছে যা না থাকার মতো। আর ফুডপান্ডা তো জার্মানিভিত্তিক ডেলিভারি হিরোর কাছে বিক্রি করে দিয়েছে রকেট।

রকেট ইন্টারনেট ও কাতারের ওরিডু গ্র‌ুপের মিলিত ভেঞ্চার হিসেবে ২০১৫ সালে শুরু হয় এশিয়া প্যাসিফিক ইন্টারনেট গ্রুপ বা  এপিএসিআইজি। এশিয়ার উদীয়মান যত ইন্টারনেটভিত্তিক ব্যবসার সুযোগ রয়েছে সেগুলোকে কাজে লাগানোকেই লক্ষ্য করে তারা যাত্রা শুরু করেছিল।

এপিএসিআইজি এ পর্যন্ত বেশ কিছু বড়সড় কোম্পানি দাঁড় করায় যার মধ্যে এই লামুডি, দারাজ, লাজাডা, জালোরা ও অন্যান্য ভেঞ্চারের নাম উল্লেখযোগ্য।