আর্কাইভ থেকে হারালো ‘পথের পাঁচালি’র মূল প্রিন্ট

আর্কাইভ থেকে হারালো ‘পথের পাঁচালি’র মূল প্রিন্ট

SHARE
Pother pachali

সম্প্রতি ভারতের ন্যাশনাল ফিল্ম আর্কাইভ থেকে হারিয়ে গেছে প্রায় ৫১ হাজার ফিল্ম রিল। এতে করে কোনো হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না প্রায় এক লাখ ত্রিশ হাজার মূল্যবান সিনেমার। হারিয়ে যাওয়া সিনেমার প্রিন্টের মধ্যে রয়েছে সত্যজিত রায়ের অস্কারজয়ী ছবি ‘পথের পাঁচালি’ ও এর সিকুয়াল ‘অপরাজিত’। এছাড়াও এ পরিচালকের আরেক জনপ্রিয় সিনেমা ‘চারুলতা’র প্রিন্টও রয়েছে হারিয়ে যাওয়া রিলের তালিকায়। এবার তাই আর্কাইভ থেকে হারালো ‘পথের পাঁচালি’র মূল প্রিন্ট

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এর বরাত দিয়ে জানা যায়, ভারতের পুনে’তে অবস্থিত জাতীয় চলচ্চিত্র সংরক্ষণ অধিদপ্তর থেকে সম্প্রতি হারিয়ে গেছে প্রায় ৫১ হাজার ৫০০ টি সিনেমা ভর্তি রিল। যাতে থাকে মোট সিনেমার পরিমাণ হতে পারে এক লাখ ত্রিশ হাজারের কাছাকাছি।

হারিয়ে যাওয়া সিনেমাগুলোর মধ্যে আরও রয়েছে মেহবুব খানের ‘মাদার ইন্ডিয়া’, রাজ কাপুরের ‘মেরা নাম জোকার’, মৃণাল সেনের ‘ভুবন সোম’, গুরু দত্তের ‘কাগজ কে ফুল’ সহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিনেমা।

ভারতীয় সিনেমা ছাড়াও হারিয়ে যাওয়া ছবির মধ্যে রয়েছে প্রখ্যাত জাপানি নির্মাতা আকিরা কুরাসওয়া’র ‘সেভেন সামুরাই’, সের্গেই আইজেনস্টান’য়ের ‘ব্যাটেলশিপ পটেমকিন’, ভিট্টোরিও ডি’সিকা’র ‘বাইসাইকেল থিফ’, ‘রোমান পোলানস্কি’র ‘নাইফ ইন দ্য ওয়াটার’ আন্দ্রেজ ওয়াজদা’র ‘অ্যাশেল অ্যান্ড ডায়মন্ডস’ সহ বিশ্বথ্যাত সিনেমার প্রিন্ট।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া সাক্ষাতকারে ফিল্ম আর্কাইভ পরিচালক প্রকাশ মাগদাম বলেন, “হারিয়ে যাওয়া ফিল্ম প্রিন্টগুলোর অধিকাংশই ১৯৯৫ থেকে ২০০৮ সালের মধ্যে জমা করা হয়েছিলো। এরপর এ প্রতিষ্ঠানের সাবেক পরিচালক পি কে নায়ারের সময় জমা রাখা হয় বাকি সিনেমার প্রিন্ট। পরবর্তীতে এ প্রিন্টগুলো কিভাবে হারিয়ে গেছে তা জানা যায়নি।”

কাগজে-কলমে সিনেমার প্রিন্টগুলো সংরক্ষণাগারে আছে এমনটা বলা হলেও বাস্তবে এ ছবিগুলো নেই সেখানে- এমনটাই পাওয়া গেছে প্রতিবেদকের অনুসন্ধানে। তবে হারিয়ে যাওয়া ফিল্মগুলোরে খোঁজ পেতে তৎপরতা চালাচ্ছে আর্কাইভ কতৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY