আমির খানের ‘দঙ্গল’ বয়কটের ডাক সানিয়া মির্জার

আমির খানের ‘দঙ্গল’ বয়কটের ডাক সানিয়া মির্জার

SHARE

কিছুদিন আগে মুক্তি পেয়েছে আমির খানের নতুন ছবি ‘দঙ্গল’-এর ট্রেলার। এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ আলোড়নও তুলেছে সেটি। অনেকে অপেক্ষা করে রয়েছেন ছবি মুক্তির জন্য, অনেকেরই আবার ভাল লাগেনি ছবির ট্রেলার দেখে। তাঁরা  ‘দঙ্গল’-কে বলছেন সলমন খানের ‘সুলতান’-ছবির ‘কপি’ । এমন নানা রকম মতবাদ  দেখা যাচ্ছে ফেসবুক এবং টুইটারে।

এর পাশাপাশি টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা-র এক টুইটকে কেন্দ্র করে আবারও তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। একটি পোস্টে ‘দঙ্গল’ ছবিটি বয়কট করার কথা বলেন  তিনি।

টুইটারে এই টেনিস সুন্দরী আমির খানের দু’টি ছবি পোস্ট করে তার উপরে লেখেন, ‘আমির খান ঠিকই বলেছেন দেশজুড়ে অসহিষ্ণুতা বাড়ছে।’ পোস্টের বামপাশের ছবিতে দেখা যাচ্ছে আমির খান বাইকের উপর বসে রয়েছেন হেলমেট এবং  গ্লাভস পড়ে। আর ডানপাশের ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ‘দঙ্গল’ ছবির ট্রেলারের একটি দৃশ্য যেখানে আমির খান খুবই সাধারণ চেহারায় স্কুটারে চড়ছেন।

ছবি দু’টির ক্যাপশন হিসেবে সানিয়া লেখেন, বাম পাশের ছবিটিতে যে আমির খানকে দেখা যাচ্ছে, তিনি ইউপিএ সরকারের সময়কার। আর ডান পাশের ছবিতে যে সাধারণ মধ্যবিত্ত আমিরকে দেখা যাচ্ছে, তিনি এনডিএ সরকারের সময়কার। আর এ থেক বোঝাই যাচ্ছে তাঁর পোস্টের উদ্দেশ্য ব্যাঙ্গাত্মক।

এছাড়াও পোস্টটিতে  তিনি ‘বয়কটদঙ্গল’ হ্যাশট্যাগও যোগ করেন। তারপর টুইটার জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে সেই হ্যাশট্যাগ। এর পর এমন আরও অনেক টুইট দেখা গেছে যেখানে এ দেশে আমির খানের ছবি মুক্তি আটকানো কথা বলা হয়েছে।

২৩ নভেম্বর ২০১৫ ,একটি অনুষ্ঠানে দেশে অসহিষ্ণুতা বাড়ছে বলে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন আমির খান।সেখানে তিনি  স্ত্রী কিরণ রাও’কে উদ্ধৃত করে বলেছিলেন, ‘‘ও জানতে চায়, আমাদের কি দেশ ছেড়ে চলে যেতে হবে। অসহিষ্ণু পরিবেশে সন্তানের ভবিষ্যৎ নিয়ে ও উদ্বিগ্ন।’’ পরে অবশ্য তার ব্যাখ্যাও দিয়েছিলেন তিনি, ‘‘আমার কথার ভুল অর্থ হয়েছিল। ভারত অসহিষ্ণু, এমন কথা আমি বলিনি। বলেছিলাম, ভারতে অসহিষ্ণুতা বাড়ছে।’’

পরে অবশ্য এ নিয়ে বেশ কিছু সময় ধরে চাপান-উতোর চলতে থাকার পরে ধীরে ধীরে বিষয়টি শিথিল হয়ে আসে।