আপনার হাতকে করে তুলুন কোমল ও মসৃণ খুব সহজেই

আপনার হাতকে করে তুলুন কোমল ও মসৃণ খুব সহজেই

SHARE
Make your hands soft and smooth

আমাদের শরীরের অন্যতম অঙ্গ হাত। সারাদিনের কাজে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় এই হাত। অথচ ত্বকের যত্নে নিলেও নেওয়া হয়না হাতের যত্ন। আর তাই দিন দিন হাত হয়ে যায় রুক্ষ, শুষ্ক প্রাণহীন। তবে একটু যত্নের মাধ্যনেই  দূর করা সম্ভব হাতের এই রুক্ষতা। আসুন জেনে নেওয়া যাক হাত নরম কোমল করার সহজ কিছু কৌশল

১। নারকেল তেল

সকলের কাছে সহজলভ্য একটি উপাদান হল নারকেল তেল। নারকেল তেলের ফ্যাটি অ্যাসিড শুষ্ক ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। রোদের ক্ষতিকর প্রভাব দূর করতেও বেশ কার্যকরী এটি । প্রথমে নারকেল তেলটাকে হাল্কা গরম করে নিন। তারপর এটি ৫ মিনিট ধরে চক্রাকারে হাতে ম্যাসাজ করুন। এটি রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ব্যবহার করুন। ভাল ফল পেতে হাতে গ্লাভস ব্যবহার করতে পারেন। এটি প্রতিদিন করুন। একই পদ্ধতিতে নারকেল তেলের পরিবর্তে বাদাম তেল ব্যবহার করতে পারেন।

২।অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েলে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং ফ্যাটি অ্যাসিড যা হাতের রুক্ষতা দূর করে নরম কোমল করে তোলে। কুসুম গরম করা অলিভ অয়েল ৫ থেকে ১০ মিনিট হাতে ম্যাসাজ করুন। অথবা সমপরিমাণ অলিভ অয়েল এবং চিনি একসাথে মিশিয়ে নিন। তারপর ৫ মিনিট ম্যাসাজ করে হাতে লাগান। এরপর গরম পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এটি ব্যবহার করুন। দেখবেন দূর হয়ে গেছে হাতের রুক্ষতা।

৩। গ্লিসারিন

এক চা চামচ গ্লিসারিন, আধা চা চামচ লেবুর রস এবং সামান্য গোলাপজল একসাথে মিশিয়ে নিন। এটি দিনে দুইবার হাতে ব্যবহার করুন। নিয়মিত ব্যবহার এক সপ্তাহের মধ্যে পেয়ে যাবেন নরম কোমল হাত।

৪।মধু এবং লেবুর রস

দুই চা চামচ লেবুর রস, দুই চা চামচ মধু এবং দুই চা চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। হাত ভালভাবে পরিষ্কার করে নিন। তারপর এই পেস্টটি ব্যবহার করুন। ১০ মিনিট ম্যাসাজ করে লাগান। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার হাতের কালো দাগ দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে।

৫।  বেসন এবং টকদইয়ের প্যাক

বেসন যেমন ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে উপকারী তেমনি হাতের যত্নেও এটি বেশ কার্যকর। বেসন এবং টকদই একসাথে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এবার এটি হাতে লাগান। ১৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি হাত থেকে মৃত চামড়া দূর করে দিতে সাহায্য করবে।