আদর্শ স্বামী হতে করণীয়

আদর্শ স্বামী হতে করণীয়

SHARE
Quality of a good husband

বিয়ের মাধ্যমে শুরু হয় জীবনের নতুন এক অধ্যায়। আর এই নতুন জীবন আর অভিজ্ঞতায় আপনার হাতটি যে ধরে রাখে সে আপনার জীবনসঙ্গী। একটি মেয়েকে যেমন নতুন পরিবেশে এসে নিজের আশেপাশের মানুষগুলোকে আপন করতে হয় তেমনি তার স্বামীকেও তার অর্ধাঙ্গীর প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করতে হয় আর বাড়াতে হয় সহযোগিতার হাত। আর তাই একজন আদর্শ স্বামী হতে হলে আপনার ভেতরে থাকা চাই কিছু গুণাবলী। আসুন জেনে নিই সেগুলো কি কি-

ভালোবাসা

সম্পর্কের মূল ভিত্তি হল ভালোবসা। যেখানে ভালোবাসা নেই সেখানে না থাকে বিশ্বাস আর না থাকে ভরসা। স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ভালোবাসা থাকাটা সবচেয়ে বেশি জরুরি। স্ত্রীর প্রতি স্বামীর ভালোবাসা তার স্ত্রীকে যেমন তার প্রতি আস্থাশীল হতে শেখায় ঠিক তেমনই দুজনের মধ্যকার ভালোবাসার বন্ধনকে করে তোলে আরো দৃঢ়।

আগলে রাখার ক্ষমতা

আপনি যে আপনার স্ত্রীকে ভালোবেসে আগলে রাখছেন তা আপনার কাজ দিয়ে তাকে ধীরে ধীরে বুঝিয়ে দিন। এতে সে যেমন আপনাকে বিশ্বাস করতে শুরু করবে তেমনই তার প্রত্যেক সমস্যার সমাধানদাতা হিসেবে বেছে নেবে আপনাকেই। আর এতে করে সম্পর্ক হবে মজবুত আর ভালোবাসা হবে দৃঢ়। তখন পরস্পরের মধ্যকার বোঝাপড়াটাও খুব সহজ হয়ে যাবে।

যোগাযোগ

আপনারা পরস্পর যখন দূরে অবস্থান করছেন তখন তাকে একটু ফোন করুন বা  মাঝেমাঝে মিষ্টি কিছু কথা লিখে এসএমএস করুন। এক্ষেত্রে তার মাঝেও নানাভাবে ভালোবাসা প্রকাশ করার ইচ্ছা জাগবে এবং তা সম্পর্কের মাঝে আনবে নতুন মোড় আর একে অপরের প্রতি অফুরন্ত ভালোবাসা।

অবুঝ

আপনার অবুঝের মতো আচরণ হয়তো প্রথম প্রথম তাকে আনন্দ দেবে।কিন্ত পরবর্তীতে হয়তো এটিই তার কাছে বিরক্তিকর হয়ে উঠতে পারে। আর তাই তার কথা ও কাজ যে আপনি গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছেন তা আপনার আচরণের মাধ্যমে তাকে বুঝিয়ে দিন। তবে সম্পর্কের মধ্যে যে খুনশুটি থাকবে না তা কিন্ত নয়। ছেলেমানুষী আর সিরিয়াসনেস সম্পর্কের মাঝে দুটোই থাকুক সমান গুরুত্বের সঙ্গে।