অবশেষে বাড়ি ফিরে পেলেন দিলীপ কুমার

অবশেষে বাড়ি ফিরে পেলেন দিলীপ কুমার

SHARE
Dilip kumar-house

অবশেষে পুনরুদ্ধার হলো বর্ষীয়ান অভিনেতা দিলীপ কুমারের বেদখল বাড়ি। মুম্বাই পুলিশের উপস্থিতিতে গতকাল মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) বাড়ির চাবি বুঝিয়ে দেওয়া হয় তার স্ত্রী সায়রা বানুকে। ভারতের মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় পালি হিল এলাকায় অবস্থিত এই সম্পত্তি এতদিন একটি রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠানের দখলে ছিল। আর তাই বহু প্রতিক্ষার পর অবশেষে বাড়ি ফিরে পেলেন দিলীপ কুমার

২ হাজার ৪১২ স্কয়ার গজের ওপর নির্মিত বাড়ি ফিরে পাওয়ায় আবেগাপ্লুত দেখিয়েছে সায়রা বানুকে। চাবি হাতে নিয়ে বেশ আনন্দ নিয়ে আলোকচিত্রীদের সেটি দেখিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে দিলীপ কুমারের টুইটার অ্যাকাউন্টে তার পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘আমরা বাড়ি ফিরে পেয়েছি। এখানেই দিলীপ সাহেবের অনেকটা সময় কেটেছে। ধন্যবাদ সুপ্রিম কোর্ট। অসংখ্য ভক্ত ও বন্ধুদের জন্যও ধন্যবাদ রইলো যারা আমাদের জন্য প্রার্থনা করেছেন।’

 

এছাড়া ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে জানানো হয়েছে,  আবাসন প্রতিষ্ঠান প্রজিতা ডেভেলপারস প্রাঃ লিমিটেড চুক্তিমাফিক পরিকল্পনা বাস্তবায়ন না করায় এক দশক আগে আদালতে মামলা হয়। এ বছরের আগস্টে প্রতিষ্ঠানটির কাছে নিবন্ধন হিসেবে চার সপ্তাহের মধ্যে ২০ কোটি রুপি দেওয়ার জন্য দিলীপ কুমারকে আদেশ দেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। একইসঙ্গে টাকা পাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে তার হাতে সম্পত্তি বুঝিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয় রায়ে।

তখন কিডনিজনিত জটিলতার কারণে মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালে বেশ কিছুদিন থাকতে হয়েছে দিলীপ কুমারকে। গত কয়েক বছর আরও কয়েকবার সেখানে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। তবে এখন তিনি সুস্থ। মঙ্গলবার রাতে টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আজ সবাই খুশি। বহুদিন পর সবার মুখে এমন খুশির ঝিলিক দেখছি। আমার শরীরটাও আগের চেয়ে অনেক ভালো।’

উল্লেখ্য, ১৯৯১ সালে পদ্মভূষণ, ১৯৯৪ সালে দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার ও ২০১৫ সালে পদ্মবিভূষণ সম্মান পান দিলীপ কুমার। তার ক্যারিয়ারে উল্লেখযোগ্য ছবির তালিকায় রয়েছে— ‘দেবদাস’, ‘মুঘল-এ-আজম’, ‘মধুমতি’, ‘গঙ্গা যমুনা’, ‘রাম অউর শ্যাম’, ‘নয়া দৌড়’ প্রভৃতি।

LEAVE A REPLY