অনলাইন ডেটিং এর কুফল

অনলাইন ডেটিং এর কুফল

SHARE
online-dating

আজকাল আমাদের জগতটা ক্রমেই ভার্চুয়ালিটির দিকে চলে যাচ্ছে। সম্পর্কগুলোও দিন দিন কৃত্রিম থেকে কৃত্রিমতর হয়ে আসছে। অনলাইন রিলেশন এবং অনলাইন ডেটিং বর্তমান তরুণ সমাজকে মারাত্মকভাবে গ্রাস করছে। এ থেকে উত্তরণের পথ না বের করলে ক্রমেই তা আরও ভয়াবহ রূপ ধারণ করবে। এতে সম্পর্কের কোনো গুরুত্ব থাকছে না। অনলাইন ডেটিং এর কুফল… পারস্পরিক ভালোবাসা, বোঝাপড়ায় ঘাটতি সৃষ্টি। ফলে ঘটছে বিচ্ছেদসহ নানা রকম পারিবারিক ও মানসিক সমস্যা। বিশেষ করে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে অনলাইন ডেটিং এর কুফল আজকাল উল্লেখ করার মতো। এতে তরুণ সমাজের মধ্যে বিকৃত মানসিকতার জন্ম হচ্ছে এবং পারস্পরিক শ্রদ্ধা, সম্প্রীতির জায়গাটা সংকীর্ণ হয়ে আসছে।

অনলাইন ডেটিং এর কথা আসলেই মনের সামনে ভেসে উঠে গত শতকের সত্তরের দশকের সেই গানের কথা অনেকের মনে আসে। গানটি হলো ‘ভিডিও কিল্ড দ্য রেডিও স্টার’। তেমনি বলা যায় ‘অনলাইন কিল্ড দ্য রিয়েল লাভ’। অনলাইন ডেটিং এর আড়ালে অনেকক্ষেত্রে সত্যিকার ভালোবাসা আজ হারিয়ে যাচ্ছে। মুখের কথার জায়গায় স্থান করে নিচ্ছে মাল্টিমিডিয়া। কল্পনার জগতের সাথে মিলে যাচ্ছে অনলাইন ভালোবাসা, আর সেখানে মেকি হয়ে যাচ্ছে সত্যিকার ভালোবাসা। মেকি হওয়ার কারণগুলো হলোঃ

অনলাইন ভালোবাসা বা ভার্চুয়াল জগতটা সবসময়ই আমদের কাছে পারফেক্ট মনে হয়। কিন্তু তা যে আমাদের বাস্তবতার সম্পূর্ণ বিপরীত তা আমরা বুঝতে চাই না। কারণ, অপর পাশের মানুষটি সবসময় আমাদের কল্পনার জগৎকে আরও রঙ্গিন করতে থাকে

একটি মানুষের জীবনকে রাঙাতে যা প্রয়োজন তার সবটুকুই দিয়ে থাকে অনলাইনের সেই মানুষটি। তাই সময় কাটানোর জন্য সেই মানুষটিই হয়ে ওঠেন তার একমাত্র অবলম্বন।

মনের কথা খুলে বলার জন্য মানুষ অনেক সময় অনলাইন বন্ধুকে বেছে নেয়। একটু একটু নির্ভরতা ধীরে ধীরে সম্পর্কের দিকে নিয়ে যায়। তখন বাস্তবের মানুষটির চেয়ে সে-ই হয়ে ওঠে আপনার চেয়ে বেশি আপন।

সঙ্গীর কাছ থেকে পাওয়া তিরস্কার, অবজ্ঞা, অবহেলা সবকিছুই একজন মানুষকে অনলাইন ভালোবাসায় আসক্ত করে তোলে। আর সেখানে ফিকে হতে থাকে সত্যিকার ভালোবাসা।

সঙ্গীর সাথে সামান্য ভুল বুঝাবুঝি বা দূরত্ব থেকেও মানুষ অনলাইন ডেটিং এ আসক্ত হয়ে পড়ে।

বাস্তবে চলার মানুষটির সাথে, বাস্তবতার নানা বিষয় নিয়ে বোঝাপড়া করতে হয়। কিন্তু অনলাইনের মানুষটি থাকে সকল বোঝাপড়ার বাইরে। তাই তার প্রতি ভালোলাগাটাও থাকে বেশি।

সর্বোপরি বাস্তবে নানা দ্বিধা-দ্বন্দ্ব আর ঝামেলা থেকে মুক্ত হয়ে, নিজের মত করে নিজেকে রাঙ্গাতে, মানুষ ঝুঁকছে অনলাইন ভালোবাসার প্রতি। আর তা অনেকক্ষেত্রেই মেকি করে দিচ্ছে আমাদের সত্যিকার ভালোবাসাকে। তাই এ বিষয়ে সবচেয়ে বেশি সজাগ থাকতে হবে পরিবারের পিতামাতাকে। একজন শিশুকে ছোটবেলা থেকে বড় হওয়ার আগ পর্যন্ত মানুষের মতো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে পরিবার। আর এই পরিবারই পারে সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের মাধ্যমে পরিবারের সদস্যদের জন্য পারিবারিক মূল্যবোধ গড়ে তুলতে। ফলে আর যাই হোক অন্তত এ ধরনের কৃত্রিম ভালোবাসা থেকে পরিত্রান পাওয়া যাবে।